Header Ads

হিমন্ত বিশ্ব শর্মা 52 জন বিধায়কের সমর্থন পেলেও মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেননি, 14 জন বিধায়ক নিয়ে কি বদরুদ্দীন আজমল মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন? এই প্রশ্ন মামুন ইমদাদুল হক চৌধুরীর


অমল গুপ্ত, গুয়াহাটি : অর্থমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা হিন্দু-মুসলিম বিভাজন ঘটিয়ে নোংরা রাজনীতি করছেন, তিনি 52 জন বিধায়কের সমর্থন নিয়েও মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেননি, মাত্র 14 জন বিধায়ক নিয়ে বদরুদ্দীন আজমল কিভাবে মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসবেন? আজ নাওবৈশার এ আই ইউ ডি এফ বিধায়ক মামুন ইমদাদুল হক চৌধুরী এই প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেনহিমন্তবিশ্ব শর্মা তাদের নেতা বদরুদ্দিন আজমলকে দোষারোপ করে হিন্দু মুসলিম বিভাজনের রাজনীতি করছেন। তা উচিত হচ্ছে না। তিনি আগামী এপ্রিল মাসে রাজ্যসভার তিন সদস্য কংগ্রেসের সঞ্জয় সিং, বিজেপির ভুবনেশ্বর কলিতা এবং বি পি এফের বিশ্বজিৎ দইমারীর সময় সীমা শেষ হবে, এই প্রসঙ্গে বিধায়ক চৌধুরী বলেন, নির্বাচনে দুটি আসনে বিজেপি জিতবে সন্দেহ নেই, বাকি একটি আসন যদি কংগ্রেস এবং এ আই ইউ ডি এফ যৌথভাবে রাজ্যের কোনও বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবীকে, যিনি সংসদে দাঁড়িয়ে রাজ্যের জ্বলন্ত সমস্যার কথা তুলে ধরতে পারবেন, এই রকম প্রার্থীকে দাঁড়া করানো হলে রাজ্যবাসী উপকৃত হবে। চৌধুরী আজ এক টিভি চ্যানেলে এই অভিমত ব্যক্ত করেন। বিজেপি বিধায়ক নুমল মোমিন বলেন, এবার তারা ডিমাহাসাও বা কারবিয়াঙলং জেলার কোনো প্রতিনিধিকে রাজ্যসভায় পাঠাবে, এই দুই পার্বত্য জেলা থেকে আজ পর্যন্ত কাউকে রাজ্যসভায় পাঠানো হয়নি।

No comments

Powered by Blogger.