Header Ads

ইরানের ৫২ টি জায়গায় হামলার হুমকি দিয়ে ট্যুইট মাৰ্কিন প্ৰসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্ৰাম্পের

 ছবি, সৌঃ আন্তৰ্জাল
নয়া ঠাহর ওয়েব ডেস্কঃ মাৰ্কিন সেনাবাহিনীর হামলায় ইরানি কুদস সেনাপ্ৰধান কাসেম সোলেমানির মৃত্যুর পর ইরান ও আমেরিকার উত্তেজনা চরমে উঠেছে। ইরানের ৫২ টি গুরুত্বপূৰ্ণ  স্থানে বড়সড় সামরিক হামলা চালানোর হুমকি দিলেন মাৰ্কিন প্ৰেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্ৰাম্প। পরপর তিনটি টুইট করে তিনি বলেছেন- ইরান কোনও মাৰ্কিন নাগরিক বা আমেরিকার কোনও সম্পত্তির ওপর হামলা করলে আমেরিকা পাল্টা হামলা করবে।

টুইট করে ট্রাম্প বলেছেন, আমরা ৫২টি জায়গাকে টার্টেট করেছি, যার মধ্যে অনেকগুলি ইরানের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির কাছে খুবই গুরুত্বপূ্র্ণ। ইরান যদি কোনও মার্কিন নাগরিক বা আমেরিকার কোনও সম্পত্তির উপর হামলা করে, আমরা দ্রুত ভয়ংকর ধরনের পাল্টা আঘাত হানবো। মার্কিন প্রশাসন মুখে উত্তেজনা প্রশমনের কথা বললেও ট্রাম্পের টুইটের পরে উত্তেজনা আরও এক ধাপ বাড়লো। ইরানের সামরিক টার্গেট না বলে সাংস্কৃতিক ভাবে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় হামলা চালানোর কথা বলার ফলে ইরানের জনগণকেও খেপিয়ে দিলেন ট্রাম্প। অনেকের মতে আমেরিকা এই রকম কিছু করলে তা আন্তর্জাতিক আইনের বিরুদ্ধে যাবে।
শুক্ৰবার ভোরে বাগদাদ বিমান বন্দরের সামনে রকেট হামলায় মৃত্যু হয় কুদস সেনাপ্ৰধান কাসেম সোলেমানির। কুদস সেনাপ্ৰধানের শেষ কৃত্যের কনভয় যাওয়ার সময় তার ওপরও হামলায় করে মাৰ্কিন সেনাবাহিনী। ইরাকে নিযুক্ত ইরআনের কমব্যাট ফোৰ্স হাশদ আল-শাবি ছিল ওই হামলার মূল লক্ষ্য। 

No comments

Powered by Blogger.