Header Ads

প্রশান্ত কিশোরকে দল থেকে বহিষ্কার করল জনতা দল (ইউ)

নয়া ঠাহর ওয়েব ডেস্ক -- 29 জানুয়ারি
দুজনের বনিবনা হচ্ছিল না বেশ কিছুদিন ধরেই । এঁরা হলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী ও জনতা দল (ইউ) সভাপতি নীতীশ কুমার ও ভোট কৌশলী এবং জনতা দল  (ইউ)-এর সহসভাপতি প্রশান্ত কিশোর । নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে দুজনের তরজা চলে আসে প্রকাশ্যেই । অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে , নীতীশ কুমার বলে বসেন , বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি অমিত শাহের কথাতেই প্রশান্ত কুমারকে দলে নিয়েছিলেন তিনি । নীতীশের দাবি ছিল,  প্রশান্তের জন্য তাঁকে চিঠি পর্যন্ত লিখেছিলেন অমিত শাহ । নীতীশ আরও বলেছিলেন, প্রশান্ত যদি জনতা দল (ইউ) -এ থাকতে চান ভাল , যদি না থাকতে চান আরো ভাল ।

ছবি, সৌঃ আন্তৰ্জাল


এরপরই নীতীশের সমালোচনায় সরব হন প্রশান্ত কুমার । তারপর আর দেরি করেননি নীতীশ । বুধবার বিকেলে জনতা দল  (ইউ)-এর তরফে ঘোষণা করা হয় যে , জনতা দল (ইউ) থেকে প্রশান্ত কিশোরকে বহিষ্কার করা হল।


নাগরিকত্ব আইনের বিরোধীতা করেছিলেন প্রশান্ত । তিনি চাইছিলেন, জনতা দল (ইউ)-ও নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাক।

এর পেছনে অন্য রাজনীতির গন্ধও পাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা । দিল্লির ভোটে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর । আর দিল্লির ভোটে বিহারী ভোট বড় ফ্যাক্টর । প্রশান্ত হয়তো চাইছিলেন, নীতীশ কুমার নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের বিরোধীতা করলে, তার প্রভাব পড়তে পারে প্রায় ২৫ লক্ষ বিহারী ভোটার থাকা দিল্লির ভোটে ।

অজয় অলোকের মতো সিনিয়র জনতা দল ( ইউ) নেতাদের প্রশান্ত কিশোরের সমালোচনা করতে দেখা গেছে ।

প্রশান্ত কিশোর অবশ্য বুধবার বিকেলেই টুইট করে জবাব দিয়েছেন নীতীশ কুমারকে । টুইটে প্রশান্ত লেখেন ,আপনি যাতে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর পদ ধরে রাখতে পারেন সে জন্য আমার শুভেচ্ছা রইল । ভগবান আপনার মঙ্গল করুন ।


পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসেরও ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর ।

No comments

Powered by Blogger.