Header Ads

‘সেঞ্চুরি’ করে ফেললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ! বসন্ত পঞ্চমীতেই পৌঁছে গেলেন নির্দিষ্ট লক্ষ্যে !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
পূর্ব ঘোষণা মতোই এবার কলকাতা বইমেলায় লক্ষ্যপূরণ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর লেখা বই এবার ১০০ ছাড়িয়ে গেল! কলকাতা বইমেলায় এবার মমতার লেখা ১৩টি বই প্রকাশ হল। ফলে ২০২০-তেই সেঞ্চুরি পূর্ণ করে নিলেন মমতা। এবার ১১টি বই প্রকাশ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রাতারাতি আরও দুটি বই প্রকাশনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়!


এ বছর কলকাতা বইমেলায় মমতার বইয়ের সংখ্যা ৯০ অতিক্রম করবে এমনটাই ঠিক ছিল। তাঁর লক্ষ্য ছিল ১০০টি বই প্রকাশের। মমতা বলেছিলেন, আমি ১০০-র সীমা অতিক্রম করতে চাই। এটি এখনও সম্ভব। কিছুটা কাজ বাকি আছে। আমি বিশ্বাস করি সেঞ্চুরির লক্ষ্যপূরণ করতে পারব। সত্যিই তিনি লক্ষ্যপূরণ করলেন। বইয়ের সংখ্যা দাঁড়াল ১০১--গতবার পর্যন্ত মমতার বইয়ের সংখ্যা ছিল ৮৮। এবার বইমেলায় ১৩টি বই প্রকাশ হওয়ায় মমতার বইয়ের সংখ্যা দাঁড়াল ১০১।
মমতার প্রকাশিত বইয়ের মধ্যে এবার রয়েছে কবিতা, ছোটদের মজার ছড়ার বই। এছাড়াও বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা নিয়েও বই প্রকাশ হচ্ছে।
বইমেলায় প্রকাশিত বইয়ের মধ্যে রয়েছে ‘সবুজ বাংলা', ‘নাগরিক', ‘লহ প্রণাম ছড়ায় ছড়ায়', ‘কবিতা বিতান' ইত্যাদি। এই ‘কবিতা বিতানে'ই রয়েছে ৯৪৬টি কবিতা!!
এছাড়া দে'জ পাবলিশিং প্রকাশ করেছে সিএএ ও এনআরসি নিয়ে মমতার লেখা ৫০টি কবিতার সংকলন। সিএএ সংক্রান্ত আর একটি ‘হোয়াই উই আর সেয়িং নো সিএএ, নো এনপিআর, নো এনআরসি' বইটিও সহ, দে'জ পাবলিশিং মোট পাঁচটি বই প্রকাশ করেছে এবার। এছাড়াও প্রকাশিত হয়েছে উর্দু শায়েরি বই ‘হিম্মত'।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই কালি-কলমের সম্পর্ক শুরু হয়েছিল ১৯৯৫ সাল থেকে। পঁচিশ বছর ধরে তাঁর এই বই লেখার প্রতি অনুরাগ অটুট রয়েছে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মমতার বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা ‘উপলব্ধি' এখনও অন্যতম সেরা বিক্রয়ক হিসাবে রয়ে গেছে।
২০১১ সালে বামফ্রন্টকে ক্ষমতাচ্যুত করে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণের কয়েক মাস আগে বইমেলায় তাঁর বই রেকর্ড সংখ্যক বিক্রি হয়েছিল। সেই বিক্রি থেকে প্রাপ্ত আয় ছাড়িয়ে গিয়েছিল দশ লক্ষ টাকা। সেইসঙ্গে তাঁর জনপ্রিয়তা যেমন বেড়েছে, তেমনি তাঁর বই বিক্রিও বেড়েছে!

No comments

Powered by Blogger.