Header Ads

ক্যাব নিয়ে না জেনেই মন্তব্য মাৰ্কিন কমিশনের, পাল্টা বিবৃতি বিদেশ মন্ত্ৰকের

নয়া ঠাহর ওয়েব ডেস্কঃ নাগরিকত্ব সংশোধন বিল অৰ্থাৎ ক্যাব নিয়ে না জেনেই মন্তব্য করেছে মাৰ্কিন কমিশন। লোকসভায় নাগরিকত্ব বিল পাশ হওয়ার পর মাৰ্কিন যুক্তরাষ্ট্ৰ থেকে  একটি বিবৃতি দেয় ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত মার্কিন কমিশন। সেখানে বলা হয়, ওই বিল দুঃখজনক। এরপর ভারতের বিদেশ মন্ত্ৰক থেকে  পাল্টা বলা হয়- এই ধরনের বিবৃতি সঠিক নয়। তা কাঙ্ক্ষিতও নয়। ওই সংস্থাটি নিজের ধারণা নিয়েই চলছে। যে বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করছে তা নিয়ে তাদের সামান্য ধারণাও নেই। 

ছবি, সৌঃ আন্তৰ্জাল
বিদেশ মন্ত্রক থেকে পাল্টা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কয়েকটি দেশে যাঁরা ধর্মীয় কারণে নির্যাতিত হয়েছেন, তাঁরা যাতে দ্রুত ভারতের নাগরিকত্ব পান, তারই ব্যবস্থা করা হয়েছে নাগরিকত্ব বিলে। পরে বলা হয়েছে, “নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে বা জাতীয় নাগরিকপঞ্জিতে কোনও ধর্মের ভারতীয়ের নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়ার কথা বলা হয়নি। এমন কথা যাঁরা বলছেন, তাঁদের বিশেষ উদ্দেশ্য আছে। কে নাগরিক আর কে নয়, তা পরীক্ষা করার অধিকার প্রতিটি দেশেরই আছে। আমেরিকারও আছে। নানা পদ্ধতিতে নাগরিকপঞ্জি তৈরি করা যেতে পারে।”

প্ৰসঙ্গত , নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে বলা হয়েছে- পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন,পাৰ্সি ও খ্ৰিস্টান সম্প্ৰদায়ের মানুষ যদি ধৰ্মীয় নিপীড়নের শিকার হয়ে ভারতে পালিয়ে আসেন, তবে তাঁদের ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর ভিত্তি বৰ্ষ করে এই সময়ের মধ্যে যারা এদেশে এসেছেন, তাঁরা নাগরিকত্ব পাওয়ার যোগ্য করে বিবেচিত হবেন। 

No comments

Powered by Blogger.