Header Ads

ফের ছোট ঘটনার তত্ত্ব ! সম্পত্তি রক্ষার দায়িত্ব রেল পুলিশের, বললেন মুখ্যমন্ত্রী !!



বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়ঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বিরোধী আন্দোলনের নামে জায়গায় জায়গায় রেলে সম্পত্তির ক্ষতি করা হয়েছে। স্টেশন ও ট্রেন পোড়ানো হয়েছে। বাদ যায়নি রাজ্য সরকারের বাসও। এইসব ঘটনায় গ্রেফতারের সংখ্যা ৬০০ থেকে ৭০০ জন বলে নিজেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ঘটনাকে দু’একটা ছোট ঘটনা বলেও ব্যাখ্যা করেছেন।

মঙ্গলবার নিয়ে পরপর চারদিন রাজ্যে একের পর এক স্টেশনে ধ্বংসাত্মক হামলা হয়েছে। স্টেশন মাস্টারের ঘলে লুটপাট চালানোর পাশাপাশি টিকিট কাউন্টার ভাঙচুর ও সেখানে আগুন লাগানোর ঘটনা ঘটেছে।
উল্লেখযোগ্য হামলাগুলি হল মালদার ভালুকা, হাওড়ার উলুবেড়িয়া, মুর্শিদাবাদের কৃষ্ণপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার আকড়া। বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে রয়েছে আরও স্টেশন। স্টেশনগুলিতে দাঁড়িয়ে থাকা একের পর ট্রেনে হামলা চালিয়ে ভেঙে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। পূর্ব ও দক্ষিণ পূর্ব রেল সূত্রে খবর এই হামলায় পূর্ব ও দক্ষিণ পূর্ব রেলে ক্ষতির পরিমাণ যথাক্রমে ২৫০ এবং ১৬ কোটি টাকা।
যাদবপুরে আজকের ভাষণের প্রায় শেষ অংশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, সম্পত্তি রক্ষার দায়িত্ব রেল পুলিশের। যদিও রাজ্য সরকারের পুলিশ সাহায্য করেছে !
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেন, রাজ্যে রেল ও রাস্তা অবরোধ করে গণ্ডগোলের ঘটনায় ৬০০ তেকে ৭০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, কোথাও আগুন জ্বলতে দেখলে নেভাবেন, অভিযুক্তকে পুলিশের হাতে তুলে দেবেন।
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দুটি ছোট ছোট ঘটনা ঘটেছে। সব ট্রেন তিনদিন ধরে বন্ধ। প্রসঙ্গত উত্তরবঙ্গের সঙ্গে যোগাযোগকারী একের পর এক ট্রেন বাতিল করে দেওয়া হয়েছে রেলের তরফ থেকে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি এইসব ট্রেন চালানো শুরু করতে রেলকে অনুরোধ করেছেন।

No comments

Powered by Blogger.