Header Ads

ক্যাব আনতে চেয়ে, অসম চুক্তি বিরোধিতা করে কেন্দ্র সংবিধান ভঙ্গ করছে অভিযোগ এ আই ইউ ডি এফের


অমল গুপ্ত,গুয়াহাটি।
অসমে   বহু আন্দোলনের পর এন আর সি  হলো, ৫৬ হাজার  কর্মচারীকে কাজে লাগিয়ে ৪-৫ বছর ধরে  ১৬০০  কোটি টাকা ব্যয় করে  ১৯ লাখ  মানুষ কে  বাদ দেওয়া হলো,  এখন  কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ক্যাব এনে   এন আর সি ছুট   মানুষগুলোকে  নাগরিকত্ব দিতে  চাইছে যা  এ আই ডি ইউ এফ কোনো ভাবে মেনে নেবে না।আজ হাতিগাঁও এ    আই ইউ ডি এফ  কার্যালয়ে  এক  সাংবাদিক সম্মেলনে দলের সাধারন সম্পাদক  তথা মুখপাত্র আমিনুল ইসলাম  একথা জানান।   কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত  শাহ এর  আমন্ত্রণে   ক্যাব  নিয়ে   আলোচনা তে অংশগ্রহণ করে   এসে  দলের স্থিতি ব্যাখ্যা করছিলেন আমিনুল। বিধায়ক   মামুন ইমদাদুল হক  চৌধুরী,হাফিজ বশির আহমেদ,সুজাম উদ্দিন লস্কর  নিজামুদ্দিন চৌধুরী  বিধায়ক রা ছাড়াও হায়দর হোসেন বরা  প্রমুখ  নেতাদের উপস্থিতিতে আমিনুল  বলেন ক্যাব   আনতে চেয়েকেন্দ্র  বিভাজনের রাজনীতি করে    সংবিধান কাজে লিপ্ত হয়েছে।  কেন্দ্র ৩৫ বছর আগের  অসম চুক্তি    বাতিল করে ক্যাব  আইন এনে ২০১৪ সাল  পযন্ত অবৈধ ভাবে  থাকা মানুষকে নাগরিকত্ব দিতে   চাইছে,, আবার ভিত্তি বছর ১৯৫১  সালের কথা বলে    লাখ লাখ  বৈধ নাগরিকের  অধিকার  কেড়ে নিতে চাইছে। কেন্দ্র ক্যাব  আনতে চেয়ে  দেশের সংবিধান ভাঙতে  চাইছে। তিনি বলেন, অসম চুক্তির ৬  নম্বর ধারা  বাস্তবায়নের নামে   হাইপাওয়ার কমিটি  গড়েছে,আবার ক্যাব এনে  অসম চুক্তির বিরোধিতা করছে , সংবিধানের ২৩ টি ধারা   ভঙ্গ  কৰা  হচ্ছে।  আমিনুল বলেন, ত্রিপুরা র মুখ্যমন্ত্রী  বিপ্লব দেব  বলেছেন ,সারা  দেশের সঙ্গে ত্রিপুরায় হলে  তাকে তো বাংলাদেশে চলে যেতে হবে।  কেন্দ্রীয়  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী র আহুত বৈঠকে  অংশগ্রহণ কারি অসমের দলগুলো ক্যাব এর বিরুদ্ধে   দুর্বল স্থিতি  গ্রহণ   করেছে বলে  তিনি অভিযোগ করেন।  অগপর স্থিতি  খুবই দুর্বল, মুখ্যমন্ত্রী  সর্বানন্দ সনওয়াল মৌনব্রত অবলম্বন  করছেন বলে তিনি   মন্তব্য   করেন।  এন আর সি নিয়ে,  অসম চুক্তি নিয়ে ক্যাব  কথা বলে কেন্দ্রের বিজেপি  সরকার অসমের ভবিষ্যত কে  অনিশ্চিত তার দিকে ঠেলে দিচ্ছে  বলে  এ  আই ইউ ডি  এফ সাধারণ  সম্পাদক আমিনুল ইসলাম অভিযোগ  করেন।

No comments

Powered by Blogger.