Header Ads

ভারতরত্ন সুধাকণ্ঠ ভূপেন হাজারিকার অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকীতে সমগ্র রাজ্যজুড়ে শিল্পীকে স্মরণ



দেবযানী পাটিকর । 
 ভারতরত্ন সুধাকণ্ঠ ভূপেন হাজারিকার অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকীতে সমগ্র রাজ্যবাসী শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করল বিশ্ব বরেণ্য এই শিল্পীকে । মঙ্গলবার জালুকবারি স্থিত ভূপেন হাজারিকার সমাধিস্থলে বিভিন্ন কার্যক্রমের দ্বারা শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মঙ্গলবার সকালেই ভারতরত্ন সুধাকন্ঠ ভূপেন হাজারিকার সমাধি স্থলে তার স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল । এর সাথে সঙ্গতি রেখে আসাম সরকারের সাংস্কৃতিক সঞ্চালকালয়ের দ্বারা স্মৃতিতর্পণ ,সর্বধর্ম প্রার্থনা সভারও আয়োজন করা হয় । নিজের ভাষণে মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন হাজারিকাকে সমন্বয় প্রতীক বলে ব্যক্ত করার সাথে গভীর শ্রদ্ধায় ভূপেন দাকে স্মরণ করেন ।তিনি আরো বলেন যে ভারতরত্ন ভূপেন হাজারিকার আদর্শ নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। এই অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক মন্ত্রী নব দলে ,মুখ্যমন্ত্রীর আইনী উপদেষ্টা শান্তনু ভড়ালী, প্রেস উপদেষ্টা হৃষিকেশ গোস্বামীর সাথে অনেক উচ্চ আধিকারী এবং অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন । ওদিকে নগরের পান্ডু কলেজে সুধাকন্ঠর মৃত্যুবার্ষিকীতে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠান উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করেন বিত্ত মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা ।তিনি ভূপেন হাজারিকার প্রতিকৃতিতে প্রদীপ প্রজ্বলিত করে অনুষ্ঠানের শুভারম্ভ করেন। নিজের।ভাষণে তিনি বলেন যে ভূপেন হাজারিকা অসমের কৃষ্টি-সংস্কৃতি কে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিয়েছিলেন ।


রাষ্ট্রীয় প্রেক্ষাপটে অসমীয়া জাতিকে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন।অসমের বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর , ভাষা কলা কৃষ্টি সংস্কৃতি কে রাষ্ট্রীয় মঞ্চে তুলে ধরেছিলেন তিনি। এই অনুষ্ঠানে বিত্ত মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা পাণ্ডু কলেজের একটি লাইব্রেরী, ডিজিটাল অ্যাটেনডেন্স রেজিস্টার ,এবংএকটি মহিলা হোস্টেল আরেকটি ছাত্রী হোস্টেলের উদঘাটন করেন। দিঘলী পুকুরের পাড়ে ভূপেন হাজারিকা কে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানায় সদৌ অসম ছাত্র সংস্থা ।এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আসুর উপদেষ্টা সমুজ্জ্বল ভট্টাচার্য উপস্থিত ছিল অনেক ছাত্রছাত্রীরা। ভূপেন হাজারিকাকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে গৌহাটি উচ্চ ন্যায়ালয়ের আইনজীবিরা। ভূপেন হাজারিকার সাংস্কৃতিক ন্যাসের উদ্যোগেও সুধাকণ্ঠের নিজরাপরের বাড়িতেও আয়োজন করা হয় শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠানের। ওদিকে মধ্য গুয়াহাটি ড০ ভুপেন হাজারিকা সম্প্রীতি রক্ষা সমিতির দ্বারা ভূপেন হাজারিকার মৃত্যুবার্ষিকীতে সুধাকণ্ঠ ভূপেন হাজারিকা স্মৃতি দিবস পালন করা হয় আইটিএ মাছখোয়ার প্রেক্ষাগৃহে । প্রদীপ  প্রজ্জ্বলন করে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। ভুপেনদার কালজয়ী গান" অসম আমার রূপহী" এই সঙ্গীত পরিবেশন করে বেঙ্গলী উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় পল্টন বাজারের শিক্ষক- শিক্ষয়িত্রী ও ছাত্র-ছাত্রীরা " ভূপেন দার অন্য একটি  কালজয়ী গীত" গঙ্গা আমার মা ,পদ্মা আমার মা" এর সাথে নৃত্য  পরিবেশন করা হয়।  নৃত্য পরিবেশনায় ছিল নিবেদিতা ডান্স ও মিউজিক স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা। পরিচালনায় ছিলেন নিবেদিতা দে।এই অনুষ্ঠানে প্রাক্তন সাংসদ রমেন ডেকা,পদ্মশ্রী অজয় দত্ত,সংগীতশিল্পী শ্রুতি গোস্বামী মনীষা হাজারিকার সাথে অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। এদিন শ্রুতি গোস্বামী বেশ কয়েকটি সংগীত পরিবেশন করেন।

No comments

Powered by Blogger.