Header Ads

মুসলিমদের দেওয়া পাঁচ একর জমিতে মসজিদ না, হাসপাতাল হোক চাইছেন জাভেদ আখতার !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
অযোধ্যা মামলায় শনিবার সুপ্রিম কোর্ট নিজের সিদ্ধান্ত শুনিয়েছে। পাঁচ বিচারকের সাংবিধানিক বেঞ্চ ৪০ দিনের শুনানির পর এই সিদ্ধান্ত নেয়। বেঞ্চ বিতর্কিত জমিতে রামলালার সমর্থনে রায় দেয়। পাশাপাশি মুসলিম পক্ষকে পাঁচ একর আলদা জমি দেওয়ার নির্দেশও দেয় আদালত। আর ওই জমি অযোধ্যাতেই হতে হবে, এবং এই জমি কেন্দ্র সরকার মুসলিম পক্ষের হাতে তুলে দেবে। একদিন আগেই বলিউড অভিনেতা সালমানের খানের বাবা সেলিম খান ওই পাঁচ একর জমিতে স্কুল বানানোর পরামর্শ দেন।


 
এবার গীতিকার ও লেখক জাভেদ আখতার ওই পাঁচ একর জমিতে হাসপাতাল বানানোর পরামর্শ দেন। জাভেদ আখতার ট্যুইটারে এই জমি নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া দেন। উনি ট্যুইটারে পোস্ট করে লেখেন, ‘খুব ভালো হবে যদি ওই পাঁচ একর জমিতে একটি চ্যারিটেবেল হাসপাতাল বানানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আর এই সিদ্ধান্তকে সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষই সমর্থন করবে।” (It would be really nice if those who get the 5 acres as compensation decide to make a big charitable hospital on that land sponsored and supported by the people all the communities.) এর আগে সুপ্রিম কোর্টের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে সেলিম খান বলেছিলেন যে, অযোধ্যায় মুসলিমদের দেওয়া পাঁচ একর জমিতে একটি স্কুল বানানো উচিত।
উনি মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে আবেদন করে জানান, ভালোবাসা জাহির করুন আর ক্ষমা করুন, এবার এই ইস্যু নিয়ে আর ঝাঁপাবেন না, এবার এগিয়ে চলুন। মুসলিমদের পরামর্শ দিয়ে সেলিম খান বলেন, এবার এই ইস্যু নিয়ে সমালোচনা না করে প্রাথমিক সমস্যা গুলো নিয়ে চর্চা করা উচিত। মুসলিমদের স্কুল আর হাসপাতালের দরকার। অযোধ্যায় মসজিদের জন্য পাওয়া পাঁচ একর জমিতে কলেজ বানালে ভালো হবে। নামাজ তো ট্রেন, প্লেন সব জায়গায় পড়া যায়। যদি ২২ কোটি মুসলিম সুশিক্ষা পায়, তাহলে এই দেশের অনেক সমস্যার সমাধান হবে।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কথায় সহমত পোষণ করে সেলিম খান বলেন, অযোধ্যা বিবাদ খতম করে আমাদের আগামী দিন নতুন করে শুরু করতে হবে। আমাদের এবার শান্তির দরকার। আমাদের প্রধান ইস্যুতে নজর দিয়ে ভবিষ্যতের ব্যাপারে ভাবতে হবে।

No comments

Powered by Blogger.