Header Ads

রাজ্যে কয়লা সিণ্ডিকেট নেই, বরাকে কয়লা কেলেংকারী সি বি আই তদন্তের আদেশ দেওয়া হয়েছে ? চন্দ্রমােহন পাটোয়ারী



অমল গুপ্ত, গুয়াহাটি।  
রাজ্যে ব্যাপক হারে কয়লা, সুপারি, পােস্ত প্রভৃতি সিন্ডিকেট চলছেবলে বহু অভিযােগ আসছে। দুর্নীতির ক্ষেত্রে শূন্য সহনশীলতার নীতি গ্রহণ করা সরকারের বিরুদ্ধে অভিযােগের আঙুল তুলছে বিরােধীরা। আজ বিধানসভায় বরাকের কংগ্রেস সদস্য কমলাক্ষ দে পুরকায়স্থের প্রশ্নের জবাবে মুখ্যমন্ত্রীর পক্ষে পরিষদীয় মন্ত্রী চন্দ্রমােহন পাটোয়ারী জানান, রাজ্যে কোনাে জায়গাতেই সিন্ডিকেট রাজ চলছে না। তবে কয়লা সরবরাহের ক্ষেত্রে কিছু অবৈধ কার্যকলাপ চলছে বলে সরকারের কাছে খবর আছে। কয়লার খনন, পরিবহনের ক্ষেত্রে সরকারিভাবে যাতে কোনাে শিথিলতা দেখানাে না হয় তার জন্য সরকার অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর স্থিতি গ্রহণ করেছে। এ সম্পর্কে সিআইডি-কে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বরাক উপত্যকা হয়ে মেঘালয়ের কয়লা বাংলাদেশে সরবরাহের ক্ষেত্রে কিছু অভিযােগের প্রেক্ষিতে করিমগঞ্জ থানায় ৬৪৭/২০১৮ এজাহার দাখিল করে সিবিআইকে হস্তান্তর করা হয়েছে। বিগত ২০১৯ সালের ১ মে তারিখে ভারপ্রাপ্ত মুখ্য সচিবের সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেখানে সংবাদপত্রে প্রকাশিত বিভিন্ন খবরাখবর পর্যালােচনা করে দেখা হয়। মন্ত্রী জানান, বরাকের কয়লা রপ্তানির গাড়ি থেকে কোনাে জনপ্রতিনিধি এবং বিধায়ক অর্থ সংগ্রহ করেছে বলে কোনাে অভিযােগ আসেনি। ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ২০১৯ সালের অক্টোবর পর্যন্ত কয়লা সরবরাহের অপরাধে বরাকে ৫৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দাখিল করা হয়েছে। এবং ১৪৮টি কয়লা ভর্তি ট্রাক বাজেয়াপ্ত করে ৮৪ জনকে গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
অসমের ছয় জনগােষ্ঠীকে উপজাতি করণ করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠানাে হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার তা বিবেচনা করে দেখছে। বিজেপির সুরেন ফুকনের এক প্রশ্নের জবাবে সমতলীয় উপজাতি এবং পশ্চাদপদ শ্রেণির মন্ত্রী চন্দন ব্রহ্ম একথা জানান, রাজ্য সরকার বিষয়টি পরীক্ষা করার জন্য এক কমিটি গঠন করে দিয়েছে। অর্থমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মার নেতৃত্বে সেই কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিনি জানান, রাজ্য সরকার অনুসূচিত জাতি এবং অনুসূচিত উপজাতির প্রমাণপত্র দেওয়ার ক্ষেত্রে পূর্বের নিয়ম পরিবর্তন করে জেলা গুলির ডেপুটি কমিশনারদের হাতে দায়িত্ব অর্পণ করা হয়েছে। তবে অন্যান্য পশ্চাদপদ শ্রেণি (অবিসি) প্রমাণপত্র দেওয়ার ক্ষেত্রে আগের নিয়মের কোনাে পরিবর্তন ঘটানাে হয়নি।

No comments

Powered by Blogger.