Header Ads

শিবসেনার দাবি খারিজ করে এনসিপিকে তলব রাজ্যাপালের--২৪ ঘণ্টা সময়সীমা !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়
শিবসেনার দাবি খারিজ করে দিয়েছেন রাজ্যপাল ভগত সিং কোশিয়ারি। তারপরই তিনি তলব করেছেন এনসিপিকে। এনসিপিকে জরুরি তলব করে ২৪ ঘণ্টার সময় দিয়েছেন রাজ্যপাল। এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ার জানিয়েছেন, রাজ্যপাল কেন আমাদের আবার তলব করল জানি না। রাজ্যপাল একজন সম্মানীয় ব্যক্তি। তাই তাঁর ডাকে সাড়া দিয়ে সাক্ষাৎ করলাম।
শিবসেনা বেরিয়ে আসার পর এদিন এনসিপি রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান। রাজ্যপাল এনসিপিকে জানান, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সরকার গঠনের দাবি জানাতে। এর আগে শিবসেনাকে তলব করেছিল রাজ্যপাল। রাজ্যপালের কাছে তাঁরা তিনদিনের সময় চেয়েছিলেন। রাজ্যপাল তাঁদের জানিয়ে দেন, তিনদিন সময় দেওয়া সম্ভব নয়। 


শিবসেনা রাজ্যপালের ডাক পাওয়ার পর এনসিপি ও কংগ্রেসের সঙ্গে যোগাযোগ করে। এনসিপি সমর্থনের আশ্বাস দেয় শিবসেনাকে। কংগ্রেসও মৌখিকভাবে জানান সমর্থন। কিন্তু কংগ্রেস সরকারিভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে বিলম্ব করায় ঝুলে রয়েছে মহারাষ্ট্রের ভাগ্য। শিবসেনা ক্ষমতায় আসতে পারবে কি না, তাও নির্ভর করছে কংগ্রেসের সিদ্ধান্তের উপর।
বর্তমান পরিস্থিতিতে কংগ্রেস দেরি করলে মহারাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি শাসন হয়ে যেতে পারে। উল্লেখ্য, কংগ্রেস এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানায়নি, উল্টোদিকে শিবসেনাকে তিনদিনের সময়ও দেননি রাজ্যপাল। পাল্টা এনসিপিকে তলব করে সরকার গঠনের দাবি জানাতে বলেছেন রাজ্যপাল এবং ২৪ ঘণ্টা সময় দিয়েছেন। এখন দেখার এনসিপি কি সিদ্ধান্ত নেয়।
এনসিপি জানিয়েছে, আমরা আমাদের জোটসঙ্গী কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা করে জানাব। এদিকে কংগ্রেস জানিয়েছে এনসিপি যা সিদ্ধান্ত নেবে আমরা তাতে সমর্থন করব। যেহেতু জোট গড়ে আমরা লড়েছি, আমরা জোট অক্ষত রেখেই ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করব। এখন দেখার শিবসেনা না এনসিপি কার হাতে ওঠে মহারাষ্ট্রের কর্তৃত্ব। কেননা উভয়েরই উভয়কে দরকার।

No comments

Powered by Blogger.