Header Ads

বিজেপি নেতা হওয়ার চেষ্টা করছেন রাজ্যপাল, মমতার ফোনে আড়িপাতা-কাণ্ডে পার্থর কটাক্ষ

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফোনে আড়িপাতা-কাণ্ডে এবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে একহাত নিলেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, রাজ্যপাল রাজনৈতিক নেতা হওয়ার চেষ্টা করছেন। তিনি রাজনৈতিক দলের মুখপাত্রের মতো কথা বলছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি রাজ্যপালকে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন।
রাজ্যপালকে নিশানায় রেখে তিনি বলেন, 'রাজ্যে যে বাংলায় গোপনীয়তা লঙ্ঘণ হচ্ছে, কারা অভিযোগ করেছেন, তার তালিকা দিন রাজ্যপাল। রাজ্যপাল শুধু রাজনৈতিক নেতা সাজার চেষ্টা করছেন, আর সব বিষয়ে মন্তব্য করছেন। রাজ্যপাল সাংবিধানিক প্রধান, আপনাকে আমরা সম্মান করি।'
কিন্তু রাজনৈতিক দলের নেতা সাজতে গিয়ে হাসির খোরাক হবেন না। পার্থ অভিযোগ করেন, বিজেপির প্রতিনিধির মতো কথা বলছেন রাজ্যপাল। দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তাঁর মন্তব্যের কোনও ফারাক নেই। যা ইস্যু হচ্ছে ওনাকে আগ বাড়িয়ে কথা বলতে হবে। রাজনৈতিক দলেরপ নেতার মতো প্রতিক্রিয়া জানাতে হবে। মতবিরোধ থাকতেই পারে, তা বলে এমনই মন্তব্য করছেন যেন রাজ্যের বিরোধিতা করাই তাঁর মুখ্য উদ্দেশ্য। 
মমতাকে একহাত নিয়ে তিনি বলেন, আমার কাছে অনেকে অভিযোগ করেছেন বাংলায় গোপনীয়তা লঙ্ঘন হচ্ছে। বাংলায় ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। তাঁর এই মন্তব্যে ফের রাজ্য ও রাজ্যপাল সম্মুখ সমরে নামে। রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের বিরুদ্ধে ফের তোপ দাগেন সাংবিধানিক প্রধান। তা নিয়ে ফের উত্তাল রাজ্যরাজনীতি। 
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছিলেন, তাঁর ফোন ট্যাপ করা হয়েছিল। তাঁর অভিযোগ, মোদী সরকারের তরফে তাঁর ও তাঁর অফিসিয়ালদের ফোনও ট্যাপ করা হয়েছিল। ফলে কোনও হোয়াটস অ্যাপ মেসেজ ঢুকছিল না ফোনে। লোকসভা নির্বাচনের সময়ের এই ঘটনা নিয়ে মোদী সরকারকে তীব্র নিন্দা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অবিলম্বে এই মর্মে হস্তক্ষেপ করার আর্জি জানান।

No comments

Powered by Blogger.