Header Ads

জিনপিংয়ের ভারত সফরের আগে পাকিস্তানকে কাশ্মীর ইস্যুতে ধাক্কা 'বড় দাদা' চিনের

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : ভারত সফরে আসছেন চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং। চেন্নাইয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তিনি। ভারত কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর চিন পাকিস্তানের পক্ষে দাঁড়িয়ে সওয়াল করলেও জিনপিংয়ের ভারত সফরের আগে সুর নরম করে ফেলল চিন। বলা যায় যা পাকিস্তানের জন্য জোর ধাক্কা তো বটেই। কারণ বেজিং জানিয়ে দিয়েছে, কাশ্মীর দ্বিপাক্ষিক বিষয়, আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করতে হবে।
ঘটনা হল, তিন দিনের চিন সফরে সেদেশে গিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি চিনের প্রশাসনের কাছে কাশ্মীর নিয়ে সরব হয়েছেন। অন্যদিকে জিনপিংয়ের ভারত সফরের আগে কাশ্মীর ইস্যুতে সুর নরম করে ফেলেছে চিন। যা অবশ্যই তাৎপর্যপূর্ণ।
পাকিস্তানের বড় দাদা বলে পরিচিত ও সর্বক্ষণের বন্ধু চিন আপাতত কাশ্মীর নিয়ে বিশেষ শব্দ খরচ করতে রাজি নয়। ইতিমধ্যে ভারত জানিয়ে দিয়েছে, কাশ্মীরের বিভাজন চিনকে কোনওভাবে প্রভাবিত করবে না। পাকিস্তান বরং সত্যকে গ্রহণ করে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানো বন্ধ করুক।
প্রসঙ্গত, অগাস্টের পাঁচ তারিখ সংসদে প্রস্তাব এনে কাশ্মীরকে দুটি অংশে ভাগ করা হয়েছে। দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হল একদিকে জম্মু-কাশ্মীর ও অন্যদিকে লাদাখ। একইসঙ্গে সংবিধানের ৩৭০ ধারা তুলে নিয়েছে কেন্দ্র সরকার।
এর আগে পাকিস্তানে থাকা চিনের রাষ্ট্রদূত ওয়াও জিং জানিয়েছিলেন, চিন পাকিস্তানের পাশে দাঁড়িয়ে কাশ্মীরিদের সমর্থন করবে। যাতে কাশ্মীরিরা তাদের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত না হন। যার বিরুদ্ধে কূটনৈতিক উপায়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। তারপরই কাশ্মীর ইস্যুতে সুর নরম করে ফেলেছে চিন।

No comments

Powered by Blogger.