Header Ads

যাদবপুরকাণ্ডের পর অসুস্থতা নিয়ে এমআরআই বাবুলের, লস অ্যাঞ্জেলসে চলল চিকিৎসা

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : গত ১৯ সেপ্টেম্বর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে বাম ছাত্র সংগঠকদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র সংঘাতের ঘটনার রেশ এখনও অব্যাহত। ক্যাম্পাসের মধ্যে সেই সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে হেনস্থার একাধিক ছবি তুলে ধরে বিজেপি শিবির। সেই ছবিতে দেখা যায়, বাবুল সুপ্রিয় চুল ধরে টানছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র, হেনস্থার জেরে জামাও সেদিন ছিঁড়ে দেওয়া হয় কেন্দ্রীয় বিজেপি মন্ত্রীর। এরপর থেকে অসুস্থতা অনুভব করেন বাবুল। আর তার জেরেই চলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এমআরাই।
এক সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট-এ বাবুল জানান, লস অ্যাঞ্জেলাসের ক্যালিফোর্নিয়া হাসপাতালে তিনি ভর্তি রয়েছেন। চলছে তাঁর বেশ কয়েকটি টেস্ট। একটি এম আরাই-এ সম্পন্ন হয়েছে। আর টেস্টের পর কী পাওয়া গেল, তা খতিয়ে দেখবেন নিউরোলজিস্ট। স্বভাবতই প্রশ্ন উঠছে কেন লস অ্যাঞ্জেলাসের হাসপাতালে তিন ভর্তি হয়েছেন? তার জবাবে ফের উঠে এলো যাদবপুরকাণ্ড।
লস অ্যাঞ্জেলাসের হাসপাতালে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ভর্তির কারণও হিসাবে বাবুল জানিয়েছেন, তাঁর বাঁ চোখে একটি তিক্ষ্ণ যন্ত্রণা অনুভূত হচ্ছে। যন্ত্রণা অনুভূত হচ্ছে কানেও। আর যাদবপুরের ক্যাম্পাসে হেনস্থার ঘটনার পর থেকেই এই অসুস্থতা। বাবুল সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, 'তথাকথিত আধুনিক বাংলার ছাত্রদের থেকে এই আঘাত আমার কাছে এসেছে। যাঁরা পাথর ছোঁড়া, লাঠিপেটা, কালো পতাকা দেখিয়েছিলেন আমায়। সেইদিন নিজেদের নক্সাল ও এসএফআই বলে দাবি করা যুব-ছাত্ররা আমায় ঘুষি মারতেও ছাড়েনি।'
জানা গিয়েছে, লস অ্যাঞ্জেলাসে পুজো উপলক্ষ্যে একটি অনুষ্ঠানের কনসার্টে যোগ দিতে যান বাবুল। সেই সময়ও তাঁকে যন্ত্রণায় ছটফট করতে দেখেন অনেকেই। গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্যও ছড়ায় দর্শকদের মধ্যে।
গত ১৯ সেপ্টেম্বর এপিভিপি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করেন বাবুল। সেই সময় বাম যুব ছাত্ররা তাঁকে প্রথমে বাধা দেন। এরপর দুই পক্ষের কথাকাটাকাটি বাড়তে থাকায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে মারধর করে ছাত্ররা। যারপর থেকে বিতর্ক, তথা উত্তেজনা চরমে ওঠে বাংলা জুড়ে। শেষে রাজ্যপালের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। ক্যাম্পাস থেকে বের হতে পারেন কেন্দ্রীয় বিজেপি মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

No comments

Powered by Blogger.