Header Ads

মহাষ্টমীতে অঞ্জলী দিয়ে কট্টরপন্থীদের রোষের শিকার নুসরত জাহান, জ্যান্ত জ্বালিয়ে মারার নিদান

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : ধর্ম যার যার উৎসব সবার। এই পরম্পরা মেনেই গোটা ভারতে সব উৎসব পালিত হয়। কখনো হিন্দুরা যাচ্ছেন মুসলিমদের পবিত্র উৎসব ঈদে অংশ নিতে। আবার কখনো মুসলিমরা পালন করছেন হিন্দুদের সব থেকে বড় উৎসব দুর্গাপূজা।
এমনকি ঈদে ভারতের বেশ কয়েকটি মন্দিরে নামাজ পড়ার ব্যবস্থাও করে দেওয়া হয়। তাছাড়াও ইসকনে ইফতার পার্টির আয়োজনও করা হয়। আরেকদিকে এবছরের দুর্গা পুজায় মণ্ডপে আজান শুনিয়ে চাঞ্চল্য তৈরি করেছে বেলেঘাটা ৩৩ পল্লী।
আর মহাষ্টমীতে হিন্দুদের এই খুশির উৎসবে অংশ নিতে পূজা মণ্ডপে হাজির ছিলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ নুসরত জাহান। তিনি মহাষ্টমীতে অংশ নিয়ে মায়ের সামনে অঞ্জলীও দেন। নুসরত জাহানের এই কাজের প্রশংসা গোটা দেশ জুড়েই হচ্ছে।
কিন্তু কিছু মানুষ আছে, যারা মানবতার আগে ধর্মকে গুরুত্ব দেয়। তাই তারা নুসরত জাহানের এই কাজে চরম ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে গালি গালাজ করছে, এমনকি নূসরাতকে জ্যান্ত জ্বালিয়ে মারার ফতোয়া দিচ্ছে।
পশিমবঙ্গের একটি দৈনিক সংবাদ মাধ্যমের ফেসবুক পেজের একটি পোস্টে সেরকমই কিছু কট্টরদের বক্তব্য ধরা পড়ল। নুসরত জাহানের অঞ্জলি দেওয়ার খবরে ক্ষেপে লাল ধর্মীয় উন্মাদেরা।
কেউ নুসরতকে নিজের নাম ত্যাগ করতে বলছে, আবার কেউ তার সব সিনেমা বয়কট করতে বলছে। নুসরত জাহান সাংসদ হওয়ার আগে থেকেই সব ধর্মের অনুষ্ঠানে অংশ নেন। এর আগে তাকে রথ যাত্রা উপলক্ষে রথের দড়িও টানতে দেখা গেছে।
এমনকি উনি ধর্ম নিরপেক্ষতা বজায় রাখার জন্য একজন হিন্দুকেও বিয়ে করেছেন। আর সেই সময়েও তাকে অনেক হুমকি শুনতে হয়েছে। কিন্তু সেগুলো পাত্তা না নিয়ে নিজের কাজ করে গেছেন।

No comments

Powered by Blogger.