Header Ads

'ভারত নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর চিন্তা অনন্য'! রাজনৈতিক চাপান-উতোরের মাঝে মোদী-সাক্ষাতের পর বললেন অভিজিৎ

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : 'নীতি নিয়ে অনেক কথাই শোনা যায়, তবে নীতির নেপথ্যে থাকা চিন্তা ভাবনা নিয়ে খুব কমন লোকজনই ভাবেন।' এভাবেই নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর প্রথম প্রতিক্রিয়া দেন। এদিন দিল্লির ৭ লোককল্যাণ মার্গে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়।
ছবি-সৌজন্য ইন্টারনেট।
সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় এদিন উঠে এসেছে প্রধানমন্ত্রীর ভাবনা চিন্তায় সরকারের কাজ সম্পর্কীয় নানা কথা। মাটির কাছের মানুষদের অবস্থা কিভাবে সরকারের কাজকে প্রভাবিত করে, এবং সরকারের কাজে অভিজাত শ্রেণির থাবা কিভাবে বিস্তৃত হতে পারে, তা নিয়ে এদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্য়ায়।
মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতের সময় বারবার নিচু তলার মানুষ ও তাঁদের উন্নয়নের প্রসঙ্গ যে উঠে আসে, তা জানাতে ভোলেননি অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। নিচু তলার মানুষ সরকারের প্রতি কিভাবে আস্থা রাখছেন, বা সরকারের কাজে কিভাবে প্রভাবিত হচ্ছেন, তা নিয়ে হয়েছে এদিনের আলোচনা।
নোবেলজয়ীকে বিজেপি নেতাদের আক্রমণ নিয়ে বাংলার রাজনীতি যখন সরগরম, তখন অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এই সাক্ষাৎ বেশ প্রাসঙ্গিক হয়ে ওঠে। মোদী সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,' ভারত নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাবনা এক্কেবারে অনন্য।' 
প্রসঙ্গত, এর আগে, বর্তমান ভারতীয় অর্থনীতি নিয়ে সমালোচনার সুর শোনা যায় নোবেলজয়ীর কণ্ঠে। যার পর পীযূষ গোয়েল থেকে রাহুল সিনহাদের তোপের মুখে পড়েন অভিজিৎ। এরপর এক সাক্ষাৎকারে অভিজিৎ জানান, 'যোগ্য জনপ্রিয় নেতা না থাকায় ভোটাররা মোদীকে ভোট দিয়েছেন।'  আর সেই সমস্ত পর্বে দূরে রেখে আজ বহু প্রতীক্ষিত এই বৈঠক সম্পন্ন হয় দিল্লিতে।

No comments

Powered by Blogger.