Header Ads

সুখবর রাজ্য সরকারিকর্মীদের ! পে কমিশন বার্তায় বেতন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত মমতার

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : পে কমিশন নিয়ে অবশেষে সরকারের সিদ্ধান্ত জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সরকারি কর্মীদের মঞ্চে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন পে কমিশনের সুরারিশ মেনে তিনি ২০২০-র ১ জানুয়ারি থেকেই তা জারি করতে চলেছে। তিনি সাফ জানান, এই সরকারকে যত দেবেন আপনারা, আপনাদেরকেও তত ঢেলে দেবে সরকার।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারি কর্মচারীদের সুখবর দিয়ে ঘোষণা করলেন, কমিশনের প্রথম পর্যায়ের রিপোর্ট পেয়েছি। সেই রিপোর্ট মেনেও নিয়েছি। আপনাদের সরকারের উপর ভরসা রাখুন। এর পাশাপাশি তিনি গ্র্যাচুইটি বৃদ্ধির কথাও ঘোষণা করেন। 
কথা দিয়েছিলাম পে কমিশন রিপোর্ট দিলে পদক্ষেপ নেব। সেই কথামতোই কাজ করব। ষষ্ঠ বেতন কমিশন কার্যকর হবে ১ জানুয়ারি থেকে। এই সুপারিশ কার্যকর হলে বাড়তি ১০ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে। গ্র্যাচুইটির সর্বোচ্চসীমা ৬ লক্ষ থেকে বেড়ে ১০ লক্ষ করা হচ্ছে। 
মমতা বলেন, আমি কমাব না। ভরসা রাখুন। আপনাদের যা প্রাপ্য। সব দেব। পরবর্তী মন্ত্রিসভার বৈঠকে ২৩ সেপ্টেম্বর এই পে কমিশনের বিষয়ে আলোচনা হবে। সেই আলোচনার পরই আমি আপনাদের অন্যান্য সুযোগসুবিধা প্রাপ্তির কথাও জানিয়ে দেব। 
এর পাশাপাশি তিন অভিযোগ করেন, যখন বামেরা ক্ষমতায় ছিল তখন কিছু করেনি। এখন তারা অহেতুক আন্দোলন করছে। আমরা কথা দিলে কথা রাখি, যা পারব না, তা বলি না। সেইমতোই পে কমিশন যা যা সুপারিশ করেছে, তা মেনে নিচ্ছি। 
এদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, একমাত্র বাংলা ছাড়া কোথাও পেনশন স্কিম নেই। আমরা পেনশন তুলে দিই নি। পেনশন তুলে দিলে অন্তত পাঁচ-ছ'হাজার কোটি টাকা বাঁচত। তবু আমরা তা করিনি। তিনি বলেন, ৮ বছরে আমরা ৯৩ শতাংশ ডিএ দিয়ে দিয়েছি। এদিন সাংবাদিকদের জন্যও বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ঘোষণা করেন তিনি।

No comments

Powered by Blogger.