Header Ads

চাঁদে হারিয়ে গেছে ইজরায়েলের ল্যান্ডার, খুঁজে বের করার জন্য সাহায্য চাইলো ইসরোর কাছে

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : ইজরায়েল এই বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভারতের মতো চন্দ্র অভিযান মিশন চালু করেছিল। তাদের স্পেসক্রাফ্ট এপ্রিলে চন্দ্র পৃষ্ঠে অবতরণ করার কথা ছিল। তবে অবতরণের শেষ মুহুর্তে ভারতের মতোই ইজরায়েলের ল্যান্ডারও যোগাযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তবে ভারত ল্যান্ডারের সাথে সাথে অর্বিটারও পাঠিয়ে ছিল। যা সক্রিয় ভাবে কাজ করছে এবং সাড়ে ৭ বছর ধরে কাজ করতে থাকবে। এই অর্বিটার চাঁদের বিভিন্ন ছবি ভারতকে প্রেরণ করতে থাকবে। এই অর্বিটার থাকার জন্য ভারত হারিয়ে যাওয়া ল্যান্ডারকে খুঁজে পেয়েছে। ভারতের বিজ্ঞানীরা এখন ল্যান্ডারের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করার চেষ্টা করছেন। ভারতের চন্দ্রযান-২ মিশন ৯৫% সফল হয়েছে। ল্যান্ডার বিক্রমের সাথে যোগাযোগ স্থাপন হলে মিশন ১০০% সফল হবে।
তবে ইজরায়েল তাদের চন্দ্র মিশনে শুধু ল্যান্ডার পাঠিয়ে ছিল। ইসরায়েল তাদের ল্যান্ডারের সাথে অর্বিটার পাঠায়নি। যার জন্য তদের মিশন সম্পুর্ন ব্যার্থ হয়ে যায় একই সাথে ল্যান্ডারও হারিয়ে যায়। ইজরায়েলের লান্ডারের নাম ছিল ব্যারিসিট, সেই লান্ডার সম্ভবত ক্র্যাশ ল্যান্ডিং করেছিল বলে ধারণা করা হয়েছে। এখন যেহেতু চন্দ্রের চারিদিকে ভারতের অর্বিটার ঘুরছে তাই ইজরায়েল ভারতের কাছে তদের ল্যান্ডার খুঁজতে সাহায্য চেয়েছে। ইসরো এই কাজে ইজরায়েলকে সাহায্য করবে।
ভারতের অর্বিটার ইজরায়েলের ব্যারিসিটকে খুঁজে বের করবে এবং ছবি সরবরাহ করবে। ব্যারিসিট এর থার্মাল ইমেজ পাওয়া গেলে সেখান থেকে তার স্ট্যাটাস বোঝা যাবে। ভারতের অর্বিটার চন্দ্রের চারিদিকে চক্কর লাগাচ্ছে এবং এটা প্রায় সাড়ে ৭ বছর কাজ করতে পারবে। প্রথমদিকে এর সময়সীমা ১ বছর বলা হচ্ছিল কিন্তু এখন জানা গেছে অর্বিটার সাড়ে ৭ বছর কাজ করবে।

No comments

Powered by Blogger.