Header Ads

নেডার চতুর্থ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করলেন গৃহ মন্ত্রী অমিত শাহ



উত্তর-পূর্বের সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কখনো কংগ্রেস কাজ করেনি :অমিত শাহ

নয় ঠাহর প্রতিবেদন। দুদিনের কার্যসূচির দ্বিতীয় দিনে গৃহ মন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার শঙ্কর দেব কলাক্ষেত্রে আয়োজিত নেডার(নর্থ ইস্ট ডেমোক্র্যাটিক অলিয়ান্স) বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন ।নেডার এই সভাতে তিনি বলেন যে উত্তর পূর্বে সন্ত্রাসবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিল তার সমাধান করার চেষ্টা কখনো করেনি কংগ্রেস। তার বিপরীতে এই সমস্যা আরো বৃদ্ধি করার কাজ করেছিল যাতে তারাই  শাসনে থাকতে পারে। গৃহ মন্ত্রী বলেন যে উত্তরপূর্বাঞ্চলের সমস্ত রাজ্যগুলির ভারতের অভিন্ন অঙ্গ একটা মানুষের মনের মধ্যে গড়ে তুলতে উত্তর-পূর্ব ভারতে কংগ্রেসের শাসন না হওয়াটাই বেশি প্রয়োজন ছিল। আমি অত্যন্ত খুশি যে আমার নেতৃত্বে মন্ত্র হিমন্ত বিশ্ব শর্মা আর অন্যান্য নেতা-কর্মীরা নেডার বীজ বপন করেছিলো সেই বীজ এক বিশাল বৃক্ষের রূপ নিয়ে এখন সমগ্র উত্তর পূর্বাঞ্চলের ছায়া প্রদান করছে । নেডার মঞ্চ থেকেই গৃহ মন্ত্রী অমিত শাহ বলেন যে নাগরিকত্ব বিল আসবে তবে বিভিন্ন জাতি জাতি উপজাতি গোষ্ঠীর  উৎকণ্ঠা দূর করে আনা হবে ।তিনি উত্তর পূর্বের বিভিন্ন রাজ্যের উপজাতি গোষ্ঠীর স্বার্থ সুরক্ষিত করার কথাও বলেন ।যাতে বিল আনা পথ সুগম হয়।  তিনি বলেন যে বিলে কোনভাবেই জাতি জনগোষ্ঠীদের অধিকার খর্ব হবে না বা  বিঘ্নিত হবেনা। উপজাতিদের অধিকার সুরক্ষায় বিভিন্ন রাজ্যে থাকা কোনো প্রচলিত আইন। তিনি আরো বলেন যে ৩৭০ দফা হচ্ছে এক অস্থায়ী প্রভিশন  আর ৩৭১ দফা হচ্ছে এই অঞ্চলের জন্য স্পেশাল প্রভিশন। নাগরিকত্ব বিল  কিছুতেই বাধা হয়ে দাঁড়াবে না ৩৭১ দফার জন্য  ।এই অঞ্চলের লোকদের সুবিধা থাকা সব আইন-কানুন সুরক্ষিত থাকবে ।ইনার লাইন পারমিট, মেঘালয়ের রেসিডেন্ট এক্ট  ৩৭১দফা সবএক রকম থাকবে তাতে কোনো ব্যাঘাত ঘটবে না।



উত্তর পূর্বঞ্চলের ১৪টি রাজ্য সভার  ৬টি তে বর্তমানে নেডার  সাংসদ রয়েছে। ভুবেনেশ্বর কলিতাকে নির্বাচিত করার দ্বারা এ সংখ্যাটি বৃদ্ধি করা হবে বলে সোমবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অমিত শাহ নেডার চতুর্থ সম্মেলনে ইংগিত দেন।প্রাক্তন সাংসদ ভুবনেশ্বর কলিতা বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন ৫,আগস্ট। তার পূর্বে প্রায় চার দশক ধরে তিনি কংগ্রেস দলের হয়ে কাজ করছেন ।বর্তমানে অসমে রাজ্যসভার দুটি আসন খালি হয়ে।আছে।প্রাক্তন কংগ্রেসী সাংসদ সঞ্জয় সিং বিজেপিতে যোগদান করা ও ভুবনেশ্বর কলিতার পদত্যাগ করার ফলে আসন দুটো খালি হয়ে আছে ।সোমবার সকালে গৃহ মন্ত্রী প্রথমে শক্তিপীঠের মা কামাখ্যার দর্শন করে আশীর্বাদ নেন। এরপর তিনি  ।রাজ্যপালকে সাক্ষাৎ করে সংবর্ধনা জ্ঞাপন করেন। ক্রিয়া মন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন মুখ্য মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল ও বিত্ত মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

No comments

Powered by Blogger.