Header Ads

সংখ্যালঘুদের নির্যাতন ইস্যুতে আন্তর্জাতিক মঞ্চে আরও কোণঠাসা পাকিস্তান

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে আপত্তির মধ্যে ফের আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ধাক্কা খেল ইমরান খানের পাকিস্তান। এবার ধাক্কা ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার নিয়ে। অভিযোগ উঠেছে পাকিস্তানে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আনরিপ্রিসেন্টেড নেশনস অ্যান্ড পিপলস অর্গানাজেশনের (ইউএনপিও) তরফ থেকে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের কাছে দরবার করা হয়েছে।
ইউএনপিও-র সেক্রেটারি জেনারেল পাকিস্তানে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের স্বাধীনতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি বিশেষ করে সিন্ধ প্রদেশের কথা উল্লেখ করেছেন। গত নভেম্বরে আমেরিকার ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেটের তরফ থেকে পাকিস্তানকে ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডম অ্যাক্ট না মানার অভিযোগ তোলা হয়েছিল। 
কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা রদ করার পর থেকে সেখানে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা রয়েছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান অভিযোগ করেছিলেন, কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চেও বিষয়টি নিয়ে এখনও কোনও সুবিধা করতে পারেনি পাকিস্তান। 
তবে এরই মধ্যে পাকিস্তানে একাধিক শিখ ধর্মামলম্বী কিশোরী কিংবা যুবতীকে জোর করে ধর্মান্তর করে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছিল। এছাড়াও, সেখানকার হিন্দু, আহমেদিয়া, হাজারা ধর্মান্তকরণ, ধর্ষণ এবং অপহরণের জেরবারে আতঙ্কিত। সেই সব ঘটনাই আন্তর্জাতিক মহলে তুলে ধরেছে আনরিপ্রিসেন্টেড নেশনস অ্যান্ড পিপলস অর্গানাজেশন সংক্ষেপে ইউএনপিও।

No comments

Powered by Blogger.