Header Ads

কেন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে শোভন ! কারণ ফাঁস করলেন রত্না!!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়

যখন দিল্লির সদর দফতরে বিজেপিতে শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন, তখন কলকাতায় নিজের বাড়িতে টিভির পর্দায় চোখ রেখে হেসে চলেছেন প্রাক্তন মেয়রের পত্নী রত্না চট্টোপাধ্যায়। ততক্ষণে দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে সবুজ রঙের পাঞ্জাবী পরে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের খানিক দূরেই বসে সাংবাদিক সম্মেলনে দেখা গেল সবুজ শাড়ি পরিহিতা বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে আর গোটা পরিস্থিতি নিয়ে শোভনপত্নী রত্না উগড়ে দিলেন একের পর এক ক্ষোভ। পাশাপাশি তিনি জানান কেন দল বদলের রাস্তায় হাঁটলেন শোভন চট্টোপাধ্য়ায়।



রত্না চট্টোপাধ্যায় এদিন বলেন,যে শোভন চট্টোপাধ্য়ায় নিজের জীবনে এতবড় অনৈতিক কাজ করেছেন সংসার ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে, সেই নেতার মুখে রাজনৈতিক নৈতিকতার প্রশ্ন আর ভালো লাগছে না। পাশপাশি, তিনি বিজেপিকে তোপ দেগে বলেন, ত্রিপুরায় বিজেপি যেভাবে জোর জবরদস্তি করে ভোট করেছে সেই দলের নৈতিকতা নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন। আর শোভন চট্টোপাধ্যায় এমনই এক অনৈতিক দলে যোগ দিয়েছেন বলে ক্ষোভ উগড়ে দেন
রত্না।
রত্না চট্টোপাধ্যায় এদিন বলেন , মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বার বার শোভন চট্টোপাধ্যায়কে সাবধান করেছিলেন। বারবার বারণ করেছিলেন এমন অনাচার করতে। রত্নার দাবি, শোভনকে সবকিছু ছেড়ে দিয়ে পরিবার ও দলের দিকে নজর দিতে বলেন মমতা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে ব্যক্তিগত জীবনযাপনে সমর্থন না পেয়েই বিজেপিতে শোভন চট্টোপাধ্যায় যোগ দিয়েছেন বলে দাবি করেন রত্না ।
এদিন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রত্না চট্টোপাধ্য়ায় বলেন, 'ওই মহিলার নাম আমি মুখে আনতে চাই না'। তাঁর দাবি , 'ওই মহিলার জন্য শুধু আমার ঘর ভাঙেনি, কলকাতা শহরের অনেকের ঘর ভেঙেছে। ' পাশাপাশি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে যেভাবে বিজেপি 'তৃণমূলের নেত্রী' হিসাবে পরিচয় দিয়েছে, তাতেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি রত্না। তিনি বলেন 'বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্য়ায় যদি তৃণমূলের নেত্রী হন, তাহলে এরকম নেত্রী তৃণমূলে অনেকে আছেন।'

No comments

Powered by Blogger.