Header Ads

বেলুচিস্তান স্বাধীন হলে নরেন্দ্র মোদীর বিশাল মূর্তি নির্মাণ করবো : বালোচ নেত্রী নায়েলা কাদরী

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : জম্মু কাশ্মীরে ধারা ৩৭০ সরিয়ে নেওয়ার পর শুধু ভারত নয় পাকিস্তানের কব্জা করা বালুচিস্তানের লোকেরাও আনন্দ-উৎসব করছেন। বালুচ-এর লোকেদের খুশির কারণ এটাই যে, মহিলা বালুচ নেতা নায়েলা কাদরী বালুচিস্তানে ভারতের পিএম মোদির মূর্তি নির্মাণের ঘোষণা করে দিয়েছেন। এক হিন্দি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে এমন খবর সামনে এসেছে। অবশ্য এর আগেও নায়েলা কাদরী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মূর্তি স্বাধীন বেলুচিস্তানে নির্মাণ করবেন বলে ঘোষণা করেছিলেন। নায়েলা কাদরী ভারতের পিএম মোদিকে হিরো’র সম্মান দেন এবং বলেন, পাকিস্তান চীনের সাথে মিলে বালুচ বংশকেই শেষ করতে চায়। পাকিস্তান বালুচদের হত্যা করছে।
নায়েরা কাদরী বলেছেন, মোদিজি যে সাহসের সাথে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্বের কোনো নেতা কোনো দিন তাঁর মতো আওয়াজ ওঠাননি। পাকিস্তান গত ৭০ বছর ধরে আমাদের উপর অত্যাচার করছে, মোদি আমাদের হিরো, মোদি আমাদের ভাই। বালুচ নেতা বলেন, আমরা বালুচেরা ১ বাটি জলের বদলে শত বছর ধরে তার অনুগত থাকি, আমরা প্রাণ দিয়ে এখনো অব্দি মাতা হিঙলাজের মন্দিরকে সুরক্ষিত রেখেছি।
নায়েলা স্পষ্ট ভাবে বলেন, বালুচিস্তানকে স্বাধীন করতে যদি ভারত সাহায্য করে তবে বালুচিস্তানের দূরগামী লাভ হবে।এক, ভারত নিজের সংস্কৃতি অনুযায়ী সাহায্যকারীর পরম্পরা পালন করবে। দ্বিতীয় হলো পরবর্তী সময়ে বালুচিস্তান ভারতকে জ্বালানি ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। মধ্য এশিয়ার সোজা রাস্তা ভারত স্বাধীন বালুচিস্তান থেকে পাবে, হিঙলাজ মাতার দর্শনের জন্যও কোনো ভারতীয়কে ভিসা নেওয়ার দরকার পড়বে না।
নায়েলা কাদেরী বলেন, ইসলামের নামে সন্ত্রাসবাদ করতে গিয়ে এখন অব্দি ৩০ লাখ বাঙালি মুসলমান ও ৪০ লাখ আফগানী মুসলমান এবং এর থেকে বেশি বালুচের হত্যা করেছে। মোদী ১৫ই আগস্টের ভাষণে বালুচিস্তানের উল্লেখ করেছিলেন, আর তারপর বালুচ স্বাধীনের দাবি আরো তীব্র হয়ে গেছে। বালুচ নেতা এবং সেখানের জনগণ বলেছে, মোদি আমাদের সাহস বাড়িয়ে দিয়েছেন এবং সেই দিন অবশ্যই আসবে যেদিন বালুচিস্তান পাকিস্থানের কব্জা থেকে স্বাধীন হয়ে যাবে। আর যেদিন বালুচিস্তান স্বাধীন হবে সেদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদীর মূর্তি বালুচিস্তানে প্রতিষ্ঠা করা হবে।

No comments

Powered by Blogger.