Header Ads

কাশ্মীর ইস্যুতে সুর নরম পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রীর

নয়া ঠাহর প্রতিবেদন : কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তেড়েফুঁরে নেমেছিলেন ভারত বিরোধীতায়। সমর্থন জোটাতে তড়িঘড়ি পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশিকে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন চিনে। কুরেশি জানিয়েছিলেন, চিন তাদের সমর্থনে রয়েছে। কিন্তু ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর চিন সফরে গিয়ে চিনকে জানিয়ে দিয়েছেন কাশ্মীর ইস্যু সম্পূর্ণ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।
রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফেও হালে জল পায়নি পাকিস্তান। আন্তর্জাতিক মহল থেকে সমর্থন জোটানোর চেষ্টা করেও সফল হয়নি পাকিস্তান। রাষ্ট্রপুঞ্জ থেকে যে সমর্থন জোটানো সহজ নয়, তা বুঝতে পারছে পাকিস্তান।
রবিবার পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী কুরেশি পিটিভিতে বলেন, আবেগ প্রকাশ করা সহজ। তার চেয়েও সহজ বিরোধীতা করা। কিন্তু পরিস্থিতি বুঝে এগোনো কঠিন কাজ। রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ হাতে মালা নিয়ে তাদের স্বাগত জানাতে দাঁড়িয়ে নেই। পাঁচ সদস্য দেশের মধ্যে যে কেউ যে কোন সময় বেঁকে বসতে পারে। তাই মুর্খের স্বর্গে বাস না করাই উচিত ।
রাষ্ট্রপুঞ্জের পাঁচ স্থায়ী় সদস্যের মধ্যে ইতিমধ্যেই সরাসরি ভারতের কাশ্মীর নিয়ে নেওয়া সিদ্ধান্তের সমর্থনে দাঁড়িয়েছে রাশিয়া। কেন্দ্রীয় সরকারের নেওয়া ৩৭০ ধারা বিলোপ ও জম্মু কাশ্মীরকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার সিদ্ধান্তে সমর্থন জানিয়ে দিয়েছে রাশিয়া।

No comments

Powered by Blogger.