Header Ads

জিডিপি গ্রোথ ৭ শতাংশ বৃদ্ধির দাবি, রাজ্যসভায় পেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা রিপোর্ট !!

লিখেছেন বরিষ্ঠ সাংবাদিক বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়

বাজেট অধিবেশনের আগে নিয়ম মেনেই রাজ্যসভায় পেশ করা হল অর্থনৈতিক সমীক্ষা রিপোর্ট ২০১৯। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন রাজ্যে সভায় পেশ করেন এই ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে রিপোর্ট। তাতে দেশের বার্ষিক আর্থিক উন্নয়নের বিবরণ দেওয়া রয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে ২০১৮-১৯ অর্থ বর্ষে দেশের বার্ষিক বিকাশ বা জিডিপি গ্রোথ ৭ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে।
ছবি, সৌঃ ফেসবুক

রিপোর্টে কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক উন্নয়ন মূলক প্রকল্পের কাজের বিবরণ দেওয়া হয়েছে। এবং আসন্ন বাজেটে উন্নয়ন প্রকল্প কী কী হতে পাের তার একটি সম্ভাব্য রিপোর্ট েপশ করা হয়েছে। সমীক্ষা রিপোর্টে স্পষ্ট দেশের আর্থিক বিকাশে সবরকম উদ্যোগ নিতে প্রস্তুত কেন্দ্রীয় সরকার। 

দেশের আর্থিক ঘাটতি ২০১৮ সালের থেকে অনেকটাই কমেছে ২০১৯ সালে। ২০১৮ সালে যেখানে ঘাটতির পরিমাণ ৬.৪ ছিল। ২০১৯ সালে সেটা কমে হয়েছে ৫.৪ শতাংশ। ২০১৯-২০ সালে সেই ঘাটতির পরিমাণ আরও কমবে এই লক্ষ্যেই নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ইতিমধ্যেই সেই লক্ষ্যে কাজ করতে শুরু করেছে। কয়েকদিন আগেই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সুদের পরিমাণ কমিয়েছে। এসে সুবিধা হয়েছে ব্যাঙ্কগুলির। তেলের দামও কমতে শুরু করেছে। এতে দেশের আর্থিক সমৃদ্ধির পক্ষে লাভ হবে।

গ্রামীণ এলাকায় ১০০ দিনের কাজের পারিশ্রমিক বাড়ানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। দেশের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যে প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে দেশিয় বাণিজ্যে বিনিয়োগ বাড়াতে কর কমানোর দিকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা ভাবছে মোদী সরকার। সেকারণেই মূলধনে সুদ বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। 

নিয়ম মেনে লোকসভাতেও পেশ করা হয় এই আর্থিক সমীক্ষা রিপোর্ট। সাধারণ মানুষের সরকারের চিন্তাভাবনা পৌঁছে দিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের ওয়েব সাইটেও দেখতে পাওয়া যাচ্ছে রিপোর্টটি।

No comments

Powered by Blogger.