Header Ads

পশ্চিমবঙ্গের ডাক্তারদের সমর্থনে অসমের ডাক্তাররাও ধর্মঘটে সামিল, হিমন্ত বলেন, মমতা সংবেদনশীল নন, চূড়ান্ত বার্থ

নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, গুয়াহাটিঃ  পশ্চিমবঙ্গের ডাক্তারদের সমর্থনে অসমের ডাক্তাররা আজও ধর্মঘটে সামিল হয়েছিলেন। কলকাতার সুরেন্দ্র নাথ সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ডাক্তার পরিবহ মুখোপাধ্যায়কে হত্যার চেষ্টা এবং বহিরাগতদের আক্রমণে কয়েকজন ডাক্তার আহত হওয়ার প্রতিবাদ দেশ জুড়ে ডাক্তারদের আন্দোলন শুরু হয়। গত ১০ জুন থেকে। ইন্ডিয়ান মেডিকেল কাউন্সিলের  ডাকে সোমবার অসম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, মনিপুর, ইটানগর, সিকিম প্রভৃতি রাজ্যে ডাক্তারদের ধর্মঘট হয়। এদিন পশ্চিমবঙ্গে আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠকে সমাধানসূত্র বের হয়। এদিন রাত থেকেই ধৰ্মঘট প্রত্যাহারের আশ্বাস দেন ডাক্তাররা। এদিন অসমের স্বাস্থমন্ত্রী ডঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  সমালোচনা করে বলেন, তিনি সংবেদনশীল নন, স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ ১০০ শতাংশই ব্যর্থ হয়েছে। বলেন হাসপাতালে বাইরের মানুষ হামলা করবে তা মেনে নেওয়া যায় না। একজন ডাক্তারকে আক্রমণ করলে হাজার রোগী ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অসমে এ জিনিস কিছুতেই মেনে নেওয়া হবে না। বরাবর তিনি মমতার কড়া সমালোচক, মমতাও সারদার অর্থ নিয়েছেন বলে বেশ কয়েক বার হিমন্ত নিন্দা করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য চিত্র নিয়ে কড়া সমালোচনা করে হিমন্ত বলেছেন, কলকাতার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রোগীদের ১০ দিন পৰ্যন্ত মাটিতে   শুয়ে থাকতে হয়। বেড দেওয়া হয় না। ১০ দিন পর ডাক্তাররা চিকিৎসা শুরু করেন, ওড়িশার কটক-এর মেডিক্যাল গুলির সমালোচনা করে হিমন্ত বলেন- সেই তুলনায় গুয়াহাটির  মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল তো মন্দির। 

No comments

Powered by Blogger.