Header Ads

শিক্ষকের অভাব, ডিমা হাসাও জেলায় গত ৩ মাস ধরে পঠনপাঠন বন্ধ নিম্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে


বিপ্লব দেব, হাফলং ৩১ মেঃ  ডিমা হাসাও জেলায় নিম্ন প্রাথমিক স্তরে শিক্ষা ব্যবস্থার শোচনীয় হয়ে পড়েছে। বিশেষ পাহাড়ি জেলার গ্রামীন এলাকায় নিম্ন প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার হাল এক প্রকার নিরাশাজনক। শিক্ষকের অভাবে স্কুলে পাঠদান প্রায় বন্ধ, বহু স্কুলে শিক্ষকের অনুপস্থিতিতে স্কুলের দরজায় ঝুলছে তালা। এমনই অবস্থা ডিমা হাসাও জেলার অন্তর্গত রংফারডিসা ও শিবরাইডিসা নিম্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের অভাবে দুটি বিদ্যালয়ই গত তিনমাস থেকে বন্ধ রয়েছে বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। সামনেই পরীক্ষার মরশুম এই অবস্থায় স্কুল দুটি বন্ধ থাকায় ছাত্রছাত্রীদের পাঠদান সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন দুটি স্কুলেই ২০ থেকে ২৫ জন ছাত্র রয়েছে তাছাড়া রয়েছে দুজন করে শিক্ষক কিন্তু ওই দুটি স্কুলের শিক্ষক প্রায় সময় প্রশিক্ষণ ও সরকারি কাজের বাহনায় স্কুলে অনুপস্থিত থাকেন এই অবস্থায় দুটি গ্রামের ছাত্রছাত্রী উপযুক্ত শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এমনকি শিবরাইডিসা নিম্ন প্রাথমিক বিদ্যালয় গত তিন মাস থেকে বন্ধ থাকায় স্কুল প্রাঙ্গন আগাছায় ভরে গেছে। কিন্তু এরপরও ডিমা হাসাও জেলায় স্বাস্থ্য বিভাগ এনিয়ে কোনও পদক্ষেপ করছে না বলে অভিযোগ। এদিকে ওই দুটি গ্রামের গ্রামবাসীর অবিলম্বে গ্রামের ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষার উপর গুরুত্ব আরোপ করার পাশাপাশি স্কুল দুটিতে শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহন করতে উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদ কর্তৃপক্ষ ও জেলার শিক্ষা বিভাগের কাছে দাবি জানিয়েছে। উল্লেখ্য উত্তর কাছাড় পার্বত্য পাহাড়ি জেলাতে শিক্ষার মানদন্ড উন্নত ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহন করলে ও শিক্ষকের অভাবে ডিমা হাসাও জেলার গ্রামে গঞ্জে শিক্ষার হাল হতাশা জনক।

No comments

Powered by Blogger.