Header Ads

মোদি সরকারের মন্ত্ৰিসভায় কে কোন দফতর পেলেন



ছবি সৌ, জি প্লাস
নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, নয়াদিল্লিঃ কে কোন মন্ত্ৰক পাচ্ছেন তা নিয়ে যে সীমাহীন উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছিল তা শেষ হল শুক্ৰবার দুপুরে। আনুষ্ঠানিকভাবে মন্ত্ৰীসভা বন্টন করা হল। প্ৰধানমন্ত্ৰীর দায়িত্বে থাকছে মহাকাশ, পরমাণু, কৰ্মিবৰ্গ, জন অভিযোগ। পেনশন, গুরুত্বপূৰ্ণ নীতি নিৰ্ধারণের দায়িত্বেও তিনি থাকবেন। যাকে নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে উঠেছিল সেই অমিত শাহ পেলেন গুরুত্বপূৰ্ণ স্বরাষ্ট্ৰ মন্ত্ৰক। অমিত শাহ মোদির বিশ্বাসভাজন। তার ওপর ৬৮ বছরের মোদি পাঁচ বছর পর পা রাখবেন ৭৩ এ। তাই অমিতকে উত্তরসূরী হিসেবে তুলে ধরতেই দলের এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে। অৰ্থমন্ত্ৰক পেলেন নিৰ্মলা সীতারমণ, স্বরাষ্ট্ৰ থেকে প্ৰতিরক্ষা নিয়ে যাওয়া হয়েছে রাজনাথ সিংকে। সড়ক ও পরিবহণ নীতীন গড়করি, সদানন্দ গৌড়া কেমিক্যালস অ্যান্ড ফাৰ্টিলাইজার্স, সুষমা স্বরাজ অসুস্থ, তাই বিদেশ মন্ত্ৰক দেওয়া হয়েছে প্ৰাক্তন বিদেশ সচিব এস জয়শঙ্করকে, রেল পেয়েছেন পিযুষ গোয়েল, নারী ও শিশু কল্যাণ ও বস্ত্ৰ মন্ত্ৰক পেয়েছেন স্মৃতি ইরানি, আইন রবিশঙ্কর প্ৰসাদ, সঙ্গে যোগাযোগ, বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্ৰযুক্তির দায়িত্বও পেয়েছেন, এছাড়াও অতি গুরুত্বপূৰ্ণ বলে পরিচিত মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্ৰক পেয়েছেন রমেশ পোখরিয়াল, রামবিলাস পাসোয়ান পেলেন ক্ৰেতা সুরক্ষা, খাদ্য এবং গণবন্টনের দায়িত্ব, নরেন্দ্ৰ সিং তোমর পেলেন কৃষি, গ্ৰামোন্নয়ন দফতর, পঞ্চায়েতি রাজ মন্ত্ৰকের দায়িত্ব। পেট্ৰোলিয়াম, ইস্পাত মন্ত্ৰক পেলেন ধৰ্মেন্দ্ৰ প্ৰধান। একমাত্ৰ মুসলিম মুখ হিসেবে মোদি মন্ত্ৰিসভায় রয়েছেন মুখতার আব্বাস নকবি। তিনি পেয়েছেন সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্ৰক। হরসিমত কউর বাদল পেলেন খাদ্য প্ৰক্ৰিয়াকরণ মন্ত্ৰকের দায়িত্ব। থবরচন্দ গহলট পেলেন সামাজিক ন্যায় ও ক্ষমতায়ন মন্ত্ৰকের দায়িত্বে। ঝাড়াখণ্ডের প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী অৰ্জুন মুণ্ডা পেলেন আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্ৰক। হৰ্ষ বৰ্ধন পেলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্ৰকের দায়িত্ব। এ ছাড়াও বিজ্ঞান ও প্ৰযুক্তি, ভূবিজ্ঞান দফতরের দায়িত্ব রয়েছে তাঁর ওপর। প্ৰকাশ জাভরেকর পেলেন পরিবেশ বন, জলবায়ু পরিবৰ্তন, তথ্য ও সম্প্ৰচার মন্ত্ৰকের দায়িত্ব। সংসদ বিষয়ক মন্ত্ৰক পেলেন প্ৰহ্লাদ জোশী। কয়লা ও খনি মন্ত্ৰকের দায়িত্বেও তিনি রয়েছেন। মহেন্দ্ৰ নাথ পাণ্ডে দক্ষতা উন্নয়ন মন্ত্ৰক ও শিল্পদ্যোগ মন্ত্ৰক। অরবিন্দ সামন্ত মন্ত্ৰিসভায় নয়া মুখ। তিনি পেয়েছেন ভারী শিল্প এবং বেসরকারি উদ্যোগ মন্ত্ৰকের দায়িত্ব। পশুপালন, ডেয়ারি ও মৎস্য দফতরের দায়িত্বে গিরিরাজ সিংহ, গজেন্দ্ৰ সিং শেখাওয়াত জলশক্তি দফতরের দায়িত্বে। বাংলা থেকে বাবুল সুপ্ৰিয় পেলেন বন, পরিবেশ, জলবায়ু পরিবৰ্তন মন্ত্ৰকের প্ৰতিমন্ত্ৰীর দায়িত্ব। দেবশ্ৰী চৌধুরী পেলেন নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্ৰকের দায়িত্ব। বাংলায় বিপুল জয় হয়েছে বিজেপির। তবুও চাপা ক্ষোভ রেয়েছে রাজ্য বিজেপির নেতাদের মধ্যে। বাংলা থেকে ১৮ জন সাংসদ দেওয়ার পরও মাত্ৰ দুজন পেয়েছেন প্ৰতিমন্ত্ৰী এটাই কি বাংলার পাওনা ছিল? রাজনৈতিক মহলে প্ৰশ্ন উঠেছে তা নিয়েই। স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰী হিসেবে শ্ৰমিক ও নিয়োগ দফতরের দায়িত্ব সন্তোষকুমার গাংওয়ারের। রাও ইন্দ্ৰজিৎ সিং পরিসংখ্যান ও কৰ্মসূচি রুপায়ণ, পরিকল্পনা মন্ত্ৰকের প্ৰতিমন্ত্ৰীর দায়িত্বে। শ্ৰীপদ নায়েক আয়ুৰ্বেদ, যোগ, নেচারোপ্যাথি, ইউনানি, হোমিওপ্যাথি ও প্ৰতিরক্ষা মন্ত্ৰকের প্ৰতিমন্ত্ৰী। জিতেন্দ্ৰ সিং উত্তরপূৰ্ব ভারত উন্নয়ন, প্ৰধানমন্ত্ৰীর দফতর, কৰ্মিবৰ্গ, গুরুত্বপূৰ্ণ নীতি নিৰ্ধারণ, মহাকাশ, পরমাণু দফতরের স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰীর দায়িত্ব পেলেন। কিরেন রিজিজু যুবকল্যাণ, ক্ৰীড়া, সংখ্যালঘু দফতরের স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰীর দায়িত্ব পেলেন। প্ৰহ্লাদ সিং পটেল সংস্কৃতি, পৰ্যটনের স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰীর দায়িত্বে। রাজ কুমার সিং বিদ্যুৎ, পুনৰ্ব্যবহারযোগ্য শক্তি, দক্ষতা, শিল্পদ্যোগের স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰীর দায়িত্বে। হরদীপ সিং পুরী আবাসন, নগরোন্নয়ন, অসামরিক বিমান পরিবহণ, শিল্প-বাণিজ্য দফতরের স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰী। মনসুখ লাল মাণ্ডব্য জাহাজ, রাসায়নিক, ও সার দফতরের স্বাধীন প্ৰতিমন্ত্ৰী। ফগন সিং কুলান্তে প্ৰতিমন্ত্ৰী স্টিল, অশ্বিনী কুমার চৌবে প্ৰতিমন্ত্ৰী স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্ৰক, অৰ্জুন রাম মেঘাওয়াল সংসদীয় বিষয়, ভারী শিল্প বেসরকারি উদ্যোগ প্ৰতিমন্ত্ৰী, ভিকে সিং সড়ক, যোগাযোগ প্ৰতিমন্ত্ৰী, কৃষ্ণ পাল সামাজিক ন্যায়বিচার- ক্ষমতায়ন প্ৰতিমন্ত্ৰী, দনভে রাওসাহেব ক্ৰেতা সুরক্ষা, খাদ্য প্ৰক্ৰিয়াকরণ প্ৰতিমন্ত্ৰী, জি কিষাণ রেড্ডি স্বরাষ্ট্ৰ দফতরের প্ৰতিমন্ত্ৰী। সুরেশ অঙ্গদী রেল প্ৰতিমন্ত্ৰী, নিত্যানন্দ রাই স্বরাষ্ট্ৰ প্ৰতিমন্ত্ৰী, রতনলাল কাটারিয়া জলশক্তি- প্ৰতিমন্ত্ৰী, ভি মুরলিধরণ বিদেশ, সংসদীয় বিষয়ক প্ৰতিমন্ত্ৰী, রেণুকা সিং সারুতা আদিবাসী উন্নয়ন প্ৰতিমন্ত্ৰী, সোম প্ৰকাশ শিল্প-বাণিজ্য প্ৰতিমন্ত্ৰী, রামেশ্বর তেলি খাদ্য প্ৰক্ৰিয়াকরণ প্ৰতিমন্ত্ৰী, প্ৰতাপচন্দ্ৰ সারঙ্গী ক্ষুদ্ৰ ও মাঝারি শিল্প, পশুপালন দফতরের প্ৰতিমন্ত্ৰী কৈলাশ চৌধুরি কৃষি উন্নয় প্ৰতিমন্ত্ৰী। পুরুষোত্তম রুপালা কৃষি প্ৰতিমন্ত্ৰী, রামদাস আটাওয়াল সামাজিক ন্যায় বিচার-ক্ষমতায়ন প্ৰতিমন্ত্ৰী, সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি গ্ৰামোন্নয়ন দফতরের প্ৰতিমন্ত্ৰী, সঞ্জীব কুমার পশুপালন প্ৰতিমন্ত্ৰী, সঞ্জয় শামরাও মানব সম্পদ, জনসংযোগ, তথ্য সম্প্ৰচার প্ৰতিমন্ত্ৰী, অনুরাগ ঠাকুর অৰ্থ দফতরের প্ৰতিমন্ত্ৰী। 

No comments

Powered by Blogger.