Header Ads

দেশে মহিলাদের নিরাপত্তা কোথায়? প্রশ্ন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর

ছবি, সৌঃ এনডিটিভি
নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, নয়াদিল্লিঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘাঁটিতে মঙ্গলবার কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, সনিয়া গান্ধী এবং প্ৰিয়াঙ্কা গান্ধী সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ৪৭ বছর বয়সী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এই প্ৰথমবার গুজরাটের গান্ধীনগরে জনসভায় বক্তব্য রাখেন। তিনি বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করে বলেন- দেশে মহিলাদের কোনও নিরাপত্তা নেই। দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ধংস করেছে মোদি সরকার। তিনি বলেন ভোটের অধিকারই তাদের বড় অস্ত্র তা ব্যবহার করে বিজেপিকে জবাব দিতে হবে। রাহুল বলেন গত ৪৫ বছরে কর্মসংহানের হার মোদি সরকারের আমলে সবচেয়ে কম। কৃষকদের সমস্যা সমাধান হয়নি। গুজরাটের মাটি থেকেই কংগ্রেস দেশজুড়ে প্রচারাভিযান শুরু করে। এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্ৰেসে যোগ দিলেন পটিদার নেতা ২৫ বছর বয়সী হাৰ্দিক প্যাটেল। প্ৰধানমন্ত্ৰী মোদিকে আক্ৰমণ করে তিনি লোকসভা নিৰ্বাচনে প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণাও করেন। গত সপ্তাহে কংগ্ৰেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর উপস্থিতিতে কংগ্ৰেসে যোগ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। সেই প্ৰতিশ্ৰুতি রক্ষা করার পর তিনি জানিয়েছেন, এবার গুজরাতের ছয় কোটি মানুষের জন্য তিনি কাজ করতে পারবেন। এদিন পুলওয়ামা হামলা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে তোপ দেগে হার্দিক বলেন, সীমান্তে ৪০ জন সেনা শহিদ হলে কংগ্রেস যখন তাদের জনসভা মুলতুবি রাখে, সেই সময় দেশের নানান প্রান্তে সভা করে বেড়িয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পরে সভাপতি রাহুল গান্ধীর সততা নিয়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন পটিদার নেতা। তাঁর দাবি, রাহুলের সততাই কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে তাঁকে সাহায্য করেছে। দলে যোগ দিয়ে তিনি বলেন- ‘‘ আজকের দিনেই মহাত্মা গান্ধী ডান্ডি যাত্ৰা শুরু করে বলেছিলেন ব্ৰিটিশদের তাড়িয়ে দেব। আমি সেই দলেই যোগ দিলাম যে দলের হয়ে দেশকে শক্তিশালি করতে একসময় সুভাষ চন্দ্ৰ বসু, পণ্ডিত নেহরু, সৰ্দার প্যাটেল, ইন্দিরা গান্ধী, রাজীব গান্ধী কাজ করেছিলেন।’’ 


No comments

Powered by Blogger.