Header Ads

অগ্নিগর্ভ অরুণাচল, জারি কার্ফু, বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা

ননীগোপাল ঘোষ, শিলং- 
ভারত-চীন সীমান্তের রাজ্য অরুণাচলের পরিস্থিতি বৰ্তমানে অগ্নিগর্ভ। পিআরসি (পার্মানেন্ট রেসিডেনসিয়েল সার্টিফিকেট ) দেওয়া নিয়ে উত্তাল হয়ে উঠেছে রাজধানী ইটানগর। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। পরিস্থিতি নিয়ে গুজব যাতে ছড়িয়ে না পরে তাই বন্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। অ-অরুণাচলিদের স্থায়ী বাসিন্দার মর্যাদা দিতে চেয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডুর নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার। জন্মসূত্রে অরুণাচলের ভূমিপুত্র নন এরা। এই ইস্যুতে অরুণাচল ছাত্র সংস্থা সহ বিভিন্ন সংগঠন  আন্দলোনে নামে। শনিবার সকাল থেকেই পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠে। ক্ষোভের আগুনে পুড়ে যায় শতাধিক গাড়ি। আহত হন অনেকেই। বাতিল করা হয় ইটানগর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। আটকে পড়েন বলিউডের সতীশ কৌশিক সহ অন্যান্যরা। যদিও পরে সতীশ কৌশিকরা নিরাপদেই বেরিয়ে এসেছেন। একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। উপমুখ্যমন্ত্রী চোওনা মেইনের বাড়িতে আগুন লাগানোর খবর পাওয়া গেছে। ইন্দো-তিবেতিয়ান বর্ডার পুলিশ ইটানগরে মোতায়েন করার খবর রয়েছে। প্রতিবাদকারীরা ইটানগর ও লাগোয়া নাহারলাগুনে দুটি পুলিশ স্টেশনে আগুন দেয় ও ভাঙচুর চালায়। পরিস্থিতি নিয়ন্‌ত্ৰণে আনতে আইটিবিপি-র ৬ কোম্পানি মোতায়েন করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু। এই বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে  পারে বলে সূত্রের খবর।

No comments

Powered by Blogger.