Header Ads

ক্ষতিপূরণ ইস্যুতে রাজ্যসরকারের বৈঠকের আমন্ত্রণঃ রেল অবরোধ সাময়িকভাবে প্রত্যাহার


বিপ্লব দেব, হাফলংঃ রাজ্যের মুখ্যসচিব টি ওয়াই দাসের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণের ইস্যু নিয়ে আগামী ১৮ আগষ্ট দিসপুরে বৈঠকে বসার আনুষ্ঠানিক ভাবে বুধবার টিঠির মাধ্যমে আমন্ত্রন পাওয়ার পর  পাহাড়ে রেল অবরোধ সাময়িক ভাবে প্রত্যাহার করার কথা ঘোষনা করে এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরাম। বুধবার এক সাংবাদিক সন্মেলন ডেকে ছাত্র সংগঠনটির সভাপতি ডেভিড কেভম বলেন গত দশ বছর থেকে উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষের কাছে  ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিকরা কিন্তু ল্যান্ড ডেভলপম্যান্ট ক্ষতিপূরণ বাবদ মোট ৪ কোটি ৫৮ লক্ষ টাকা মিটিয়ে দিচ্ছে না রেল এই অভিযোগ করে ডেভিড কেভম বলেন লামডিং-শিলচর ব্রডগেজ নির্মান করতে গিয়ে পাহাড় কেটে মাটি ফেলার দরুন নিউহাফলং থেকে নিউহারাঙ্গাজাও পর্যন্ত ৫০ টি গ্রামের প্রায় ৫০০ টি পরিবারের কৃষি জমি ও বাড়ি ঘর নষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষ ওই সব ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিকদের ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছে না। ডেভিড বলেন এই ক্ষতিপূরণ ইস্যু নিয়ে ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরামের সঙ্গে রেল কর্তৃপক্ষের ১৯ বার যৌথ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় এবং প্রতিবার বৈঠকে রেল কর্তৃপক কখনও একমাস আবার কখনও দুইমাসের মধ্যে ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেওয়ার পর সব আষাঢ়ে গল্প হয়ে দাঁড়ায়। প্রতিবারই রেল কর্তৃপক্ষ তাদের ঠকিয়েছে বলে অভিযোগ করেন ডেভিড কেভম। সাংবাদিক সন্মেলনে ডেভিড কেভম বলেন গত ১৯ এপ্রিল ক্ষতিপূরণের দাবিতে এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরাম ডিমা হাসাও জেলায় অনিদৃষ্টকালের রেলঅবরোধের ডাক দিয়েছিল। সে সময় পাহাড়ে প্রায় দু‘দিন রেলের চাকা বন্ধ ছিল। অবশেষে উত্তর পূর্ব অবশেষে উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দিতে রাজি হয়েছে বলে রাজ্যের মুখ্যসচিব টি ওয়াই দাসের কাছ থেকে আশ্বাস পাওয়ার পর সে সময় রেল অবরোধ প্রত্যাহার করে ছাত্র সংগঠনটি। তারপর ক্ষতিপূরণে ইস্যু নিয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব টি ওয়াই দাসের পৌরহিত্যে দিসপুরে গত ২ মে ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরাম উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষ ডিমা হাসাও জেলাপ্রশাসন পার্বত্য পরিষদের ভূমি রাজস্ব বিভাগের আধিকারিকদের সঙ্গে যৌথ বৈঠকে রেল কর্তৃপক্ষ দু‘মাসের মধ্যে ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিলে এনিয়ে কার্যত কোনও পদক্ষেপ গ্রহন করেনি রেল কর্তৃপক্ষ। দু‘মাস পার হয়ে যাওয়ার পর ও ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিকদের ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দিতে কোনও ব্যবস্থা গ্রহন করেনি উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষ। তাই বাধ্য হয়ে ৯ আগষ্ট থেকে ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরাম পাহাড়ে অনিদৃষ্ট কালের রেল অবরোধ করার পাশাপাশি রেলের সদর দপ্তর মালিগাঁওয়ে অনিদৃষ্ট কালের অনশনে বসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তবে বুধবার ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়ার মাধ্যমে রাজ্যের মুখ্যসচিব টি ওয়াই দাসের কাছ থেকে আগামী ১৮ আগষ্ট দিসপুরে বৈঠকের জন্য আনুষ্ঠানিক চিঠি ও রেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে এ সপ্তাহে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার আশ্বাস পেয়ে রাজ্যসরকারের উপর বিশ্বাস করে ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরাম ৯ আগষ্ট থেকে অনিদৃষ্টকালের রেল অবরোধ ও অনশন সাময়িক ভাবে ১৮ আগষ্ট পর্যন্ত প্রত্যাহার করা হয়। আগামী ১৮ আগষ্ট দিসপুরে বৈঠকে ওই ক্ষতিপূরণ ইস্যুর সমাধান না হয় তাহলে এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্ট ফোরাম তাদের আন্দোলনে অটল থাকবে বলে হুঁশিয়ার করে দেন সাংবাদিক সন্মেলনে ডেভিড কেভম। তবে বৃহষ্পতিবার থেকে অনিদৃষ্টকালের রেল অবরোধ সাময়িক ভাবে প্রত্যাহার।

No comments

Powered by Blogger.