Header Ads

শুক্ৰবার কাকভোরে অবশেষ ফাঁসি হল নিৰ্ভয়া কাণ্ডের ৪ দোষীর, সারারাত অদ্ভুত আচরণ দোষীদের

নয়া ঠাহর ওয়েব ডেস্কঃ
দীৰ্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে ন্যায় বিচার পেলেন দেশের মেয়ে নিৰ্ভয়া এবং তাঁর পরিবার। শুক্ৰবার ভোর সাড়ে পাঁচটায় চার দোষী অক্ষায় কুমার ( ৩১), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শৰ্মা( ২৬) ও মুকেশ সিংকে(৩২) ফাঁসি দেওয়া হয়।

 উত্তরপ্ৰদেশের মেরঠের বাসিন্দা জল্লাদ পবন চার দোষীকে ফাঁসি দেন। এদিন দিল্লির তিহাড় জেলের বাইরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল।

ফাঁসির আগে বৃহস্পতিবার সারারাত অদ্ভুত আচরণ করে চারজনই। কেউই রাতে এবং সকালের খাবার খায় নি। ৪ জন আসামীকেই ভিন্ন ভিন্ন ঘরে বন্দি করে রাখা হয়েছিল। ফাঁসির আগে দোষীদের স্নান করানোর নিয়ম থাকলেও প্ৰত্যেকেই স্নানে রাজি হয়নি। এদিন ভোর সোয়া ৫ টা নাগাদ ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকের পরীক্ষার পর ৩ নম্বর জেলে নিয়ে গিয়ে ফাঁসির দড়িতে ঝোলানো হয় অপরাধীদের। টানা আধঘন্টা সেইভাবেই রাখা হয়। এরপর জেলের ডিরেক্টর তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপর দেহগুলি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

২০১২ সালে ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লিতে চলন্ত বাসে ২৩ বছর বয়সী প্যারামেডিক্যালের ছাত্ৰী নিৰ্ভয়াকে গণধৰ্ষ করে ৬ জন। অভিযুক্তদের মধ্যে একজন নাবালক বলে সংশোধানাগারে ৩ বছর থাকার পর ছাড়া পেয়ে যায়। আরেকজন অভিযুক্ত জেলের মধ্যেই আত্মহত্যা করে। বাকি ৪ দোষীকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত। তারপর দীৰ্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর শুক্ৰবার ভোরে তা পরিণতি পায় ফাঁসিতে।

নির্ভয়ার মা আশাদেবীর প্ৰথম প্ৰতিক্ৰিয়া - শেষ পৰ্যন্ত আদালতের কাছ থেকে ন্যায় বিচার পাওয়া গেল। 




 

No comments

Powered by Blogger.