Header Ads

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে এক রেলকর্মী ভর্তি আইসোলেসন ওয়ার্ডে, বিনা কাজে ঘর থেকে বাইরে না আসার আহ্বান সিইএমের

বিপ্লব দেব, হাফলং ২৪ মার্চঃ 

একমাত্র সচেতনতাই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে পারে বলে মন্তব্য করেন উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের সিইএম দেবোলাল গার্লোসা। কারন এখন পর্যন্ত এই করোনা ভাইরাস কভিড ১৯ রোগ প্রতিরোধে কোনও প্রতিষেধক বা ওষুধ বের হয়নি। যার দরুন সজাগতাই এই রোগ প্রতিরোধের একমাত্র উপায়। তাই বিনা কাজে কেউ যাতে নিজের ঘর থেকে বের না হন এই আহ্বান জানান সিইএম দেবোলাল গার্লোসা। তিনি বলেন অসমের বাইরে চাকরি করা পড়াশুনা করা ডিমা হাসাও জেলার ছাত্রছাত্রীদের সনাক্ত করে এদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা উচিত। এবং যারা বাইরে থেকে এসেছেন তাদের নিজে থেকেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে হোম কোয়রেন্টাইনে থাকার আহ্বান জানান সিইএম। তিনি বলেন ডিমা হাসাও জেলায় তেমন উন্নত স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নেই তার মধ্যে চিকিৎসক স্বাস্থ্য কর্মীরা কাজ করে চলছেন। 


সিইএম বলেন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে বাইরে থেকে আসা যাওয়া যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এমনকি লক ডাউনের সময় যাতে কেউ ঘর থেকে বের না হন করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতার কথা মাথায় রেখে নিজেদের যাতে ঘরের মধ্যেই আবদ্ধ করে রাখেন সবাই এই আহ্বান জানিয়েছেন সিইএম দেবোলাল গার্লোসা। এদিকে স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা গিয়েছে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সন্দেহে এক রেলকর্মীকে হাফলং সরকারি হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। জানা গেছে ছুটি কাটিয়ে তিন চারদিন আগেই পাটনা থেকে হাফলং ফিরেছেন। ইতিমধ্যে ওই ব্যাক্তির রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য শিলচর মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। তাছাড়া অসমের বাইরে থেকে ডিমা হাসাও জেলার পাঁচজন ব্যাক্তির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার পর এদের ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

No comments

Powered by Blogger.