Header Ads

ভাল নেই নিৰ্বাসিত পাক স্পিনার দানিশ কানেরিয়া, প্ৰধানমন্ত্ৰী ইমরান খানের কাছে চাইলেন সাহায্যের প্ৰাৰ্থনা

নয়া ঠাহর ওয়েব ডেস্কঃ
পাকিস্তানে নিৰ্বাসিত ক্ৰিকেটার কানেরিয়া ভাল নেই। বিভাজনের শিকার হয়েছেন তিনি। তাই নিজের দূরাবস্থার কথা তুলে ধরে পাকিস্তানের প্ৰধানমন্ত্ৰী ইমরান খান ও পাক ক্ৰিকেট প্ৰশাসনের সাহায্য চেয়েছেন দানিশ কানেরিয়া।
ছবি, সৌঃ আন্তৰ্জাল
ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্লাব এসেক্সের হয়ে খেলার সময় স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে দানিশকে নিৰ্বাসিত করেছিল ইংল্যান্ড ক্ৰিকেট বোৰ্ড। এরপর অনেকের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন পাক স্পিনার দিনেশ কানেরিয়া। কিন্তু তাঁর আবেদনে কেউ সারা দেয়নি। শেষ পৰ্যন্ত বাধ্য হয়ে তিনি পাক প্ৰধানমন্ত্ৰী ইমরান খান সরকারের কাছে সাহায্যের প্ৰাৰ্থনা করেছেন। কানেরিয়া বলেছেন- ‘‘ইমরান খান সহ পাকিস্তানের সমস্ত কিংবদন্তি ক্ৰিকেটার, ক্ৰিকেট প্ৰশাসনের কাছে আবেদন করছি। আমি খুব কষ্টে আছি। আমাকে এই অবস্থা থেকে উদ্ধার করুন। পাকিস্তানের অসংখ্য মানুষের কাছে আমি সাহায্য চেয়েছি। কিন্তু কোনও সাহায্য পাইনি। ক্ৰিকেটার হিসেবে পাকিস্তানের হয়ে আমি নিজেকে উজার করে দিয়েছি। এর জন্য আমি গৰ্বিত। এই সময়ে আমার সাহায্যের দরকার। আমি আশাবাদী পাকিস্তানের মানুষ আমার দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন।’’


একসময় একমাত্ৰ হিন্দু হওয়ায় ভালো পারফরমেন্সের জন্য কখনও বাড়তি প্ৰশংসা পাননি তিনি। তিনি পাকিস্তানের প্ৰাক্তন ডানহাতি লেগ স্পিনার দানিশ কানেরিয়া। বৃহস্পতিবার সেদেশের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এইরকমই মন্তব্য করেন পাকিস্তানের পেসার শোয়েব আখতার। শুধু তাই নয়, হিন্দু হওয়ার কারণে দলের বাকি সতীৰ্থদের সঙ্গে খাবার টেবিলে একসঙ্গে খাবার খাওয়ার ক্ষেত্ৰেও কানেরিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। সেসময় তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন আখতার। লড়াই করেছিলেন এই বিভাজনের বিরুদ্ধে। 
অনিল দলপতের পর দ্বিতীয় হিন্দু ক্ৰিকেটার হিসেবে পাকিস্তানের হয়ে ৬১ টেস্টে ২৬১ টি উইকেট নিয়েছেন ৩৯ বছরের কানেরিয়া।
 কানেরিয়ার সমৰ্থনে টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আখতার জানান- ২০০৫ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে কানেরিয়াই তাদের ম্যাচ জিততে সাহায্য করেছিলেন। তাঁকে ছাড়া ওই সিরিজ জেতা সম্ভব হত না। কিন্তু কেউ কানেরিয়াকে তাঁর পারফরমেন্সের জন্য তাঁকে প্ৰশংসা করেনি।  শোয়েবের এই অভিযোগের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্ৰ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
শোয়েবের এই বিস্ফোরক মন্তব্যকে সমৰ্থন করেছেন কানেরিয়া। বিশ্বের কাছে সত্যি কথা তুলে ধরার জন্য তিনি শোয়েবকে ব্যক্তিগতভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

No comments

Powered by Blogger.