Header Ads

দেশের সেরা দশটি থানার লিস্ট প্রকাশ করলো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, তালিকায় নেই বাংলার একটিও থানা

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : গোটা দেশে মহিলাদের বিরুদ্ধে বাড়তি অপরাধ নিয়ে জনতার মধ্যে ক্ষোভ জমেছে। সবাই এখন পুলিশ প্রশাসনের কাজ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে। আরেকদিকে এরই মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক দেশের সেরা ১০টি পুলিশ স্টেশনের লিস্ট প্রকাশ করেছে। রাজনৈতিক সংঘর্ষ এবং অপরাধ নিয়ে প্রায় দিনই শিরোনামে থাকা রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ, বিহার আর উত্তর প্রদেশের একটিও পুলিশ স্টেশনের নাম এই তালিকায় নেই ! দেশে সবথেকে ভালো কাজ করা থানার তালিকায় এক নম্বরে অবেরদিন থানার নাম আছে যেটি আন্দামান নিকোবর দ্বীপ পুঞ্জে অবস্থিত।
রাজ্য অনুযায়ী, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ-এর পর দ্বিতীয় স্থানে আছে গুজরাট, তৃতীয় স্থানে মধ্য প্রদেশ, চতুর্থ স্থানে তামিলনাড়ু, পঞ্চম স্থানে অরুনাচল প্রদেশ, ষষ্ঠ স্থানে দিল্লী, সপ্তম স্থানে রাজস্থান, অষ্টম স্থানে তেলেঙ্গানা, নবম স্থানে গোয়া আর দশম স্থানে মধ্যপ্রদেশের একটি করে থানা।
থানার পারফরমেন্স যাচাই করার জন্য তিনটি জিনিষের উপর ভরসা করা হয়। প্রথম হল প্রপার্টি অফেন্স মানে সম্পত্তির সাথে জড়িত অপরাধ। দ্বিতীয় হল মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ আর তৃতীয় হল সমাজের নিম্নবর্গের মানুষদের বিরুদ্ধে হওয়া সংগঠিত অপরাধ। যেসব থানায় এই মামলা গুলো কম পাওয়া গেছে, সেগুলোকে ভালো থানা বলে ধরে নেওয়া হয়েছে।
গত এক সপ্তাহে মহিলাদের সাথে ধর্ষণ আর তারপর হত্যার মামলা একের পর এক সামনে এসেই যাচ্ছে। আর এর মধ্যে থানার র‌্যাংকিং রাজ্যের বাড়তি অপরাধের মুখোশ খুলে দিচ্ছে। সমস্ত রাজ্য থেকে মোট ১৫ হাজার ৫৭৯ টি থানাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। সেখানকার মানুষদের কাছ থেকেও থানার সম্বন্ধে ফিডব্যাক নেওয়া হয়েছে। প্রথম দফায় সমস্ত রাজ্য থেকে তিনটি করে থানা নির্বাচিত করা হয়েছে। এরপর দিল্লী আর অন্য রাজ্য গুলো থেকে দুটি করে থানা নির্বাচিত করা হয়েছে, আর শেষে সমস্ত কেন্দ্র শাসিত রাজ্য থেকে একটি করে থানা বাছাই করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে মোট ৭৯ টি থানা বাছাই করা হয়েছিল। আর শেষ দফায় মোট ১৯ টি পুলিশ স্টেশনকে বেছে নেওয়া হয়েছিল।

No comments

Powered by Blogger.