Header Ads

'এইরকমের এনকাউন্টার আইনত বৈধ করা হোক', গর্জে উঠলেন লকেট, একই সুর শতাব্দীর

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : সংসদে যাওয়ার সময় এদিন সকালে বঙ্গ বিজেপির দাপুটে নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় অভিনন্দন জানালেন তেলাঙ্গানা পুলিশকে। তেলাঙ্গানায় গণধর্ষণে অভিযুক্তের এনকাউন্টার নিয়ে এভাবেই প্রতিক্রিয়া জানালেন বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। অন্যদিকে, পার্টিগত বিভেদ থাকলেও , লকেট চট্টোপাধ্যায়ের সুরেই সুর মেলালেন তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। দুই অভিনেত্রী তথা নেত্রী হয়ে ওঠা সাংসদ এদিন তেলাঙ্গানা পুলিশের সাহসকে কুর্নিশ জানিয়েছেন।
এদিন বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্য়ায় জানান, 'এমন এনকাউন্টারকে আইনিভাবে বৈধতা দেওয়া উচিত।' তিনি বলেন, সকালে উঠে এই খবর পেয়ে খুব ভালো লেগেছে। লকেট বলেন, 'মেয়েটার আত্মা শান্তি পেল।.. আমি ধন্যবাদ জানাই হায়দরাবাদ পুলিশকে।' 
সাংসদ শতাব্দী রায়ও এদিন জানিয়েছেন একই সুরের প্রতিক্রিয়া। তিনি বলেন,অনেকেই বলবেন যে সাংসদ হিসাবে এই এনকাউন্টার কিভাবে সমর্থন করছি ! এরপরই তিনি বলেন, ' একজন মানুষ হিসাবে একজন মা হিসাবে বলতে পারি, ঠিক হয়েছে।' তাঁর দাবি, দীর্ঘদিন আইনি প্রক্রিয়া চললেও তার ফলাফল মেলেনা। তিনি বলেন ,'জেলের মধ্যে বসে অপরাধীরা ফ্রায়েড রাইস খেত.. তা ঠিক নয়।' তিনি বলেন, এই ঘটনায় সম্ভবত অনেকেই ভয় পাবেন। 
প্রসঙ্গত, বিজেপির সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী সংসদে যাওয়ার সময় সকালেই বলেছিলেন যে 'আইন হাতে তুলে নেওয়া উচিত হয়নি'। আর সেই মানেকার পার্টির সদস্য লকেট চট্টোপাধ্যায়ই কার্যত তাঁর উল্টো সুরে কথা বলেন। 
অন্যদিকে, কলকাতায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বার্তা দেন যে 'আইন হাতে তুলে নেওয়া ঠিক নয়।' আর নেত্রীর সেই বার্তার উল্টো সুরেই কার্যত সংসদের বাইরে দলের বীরভূমের সাংসদ শতাব্দী রায় তৃণমূল সুপ্রিমোর উল্টো সুরেই গর্জে ওঠেন !

No comments

Powered by Blogger.