Header Ads

পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের না, রোহিঙ্গা মুসলিমদের স্বাগত জানানো হয় ! সংসদে বিস্ফোরক লকেট চ্যাটার্জী

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : লোকসভায়  আজ সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পেশ করেন। সংসদে চরম হৈ-চৈ-এর মাঝেই এই বিল নিয়ে বক্তব্য রাখেন তিনি। কংগ্রেস সমেত সমস্ত বিজেপি বিরোধী দলই সংসদে নাগরিক সংশোধন বিলের তীব্র বিরোধিতা করে।
সংসদে নাগরিক সংশোধন বিল নিয়ে আলোচনার মাঝে শিব সেনার সাংসদ অরবিন্দ সাওয়ান্ত বলার সুযোগ পাননি। স্পীকারের ভূমিকায় থাকা বিজেপির সাংসদ মিনাক্ষী লেখি শিবসেনার সাংসদ অরবিন্দ সাওয়ান্তের নাম নিয়ে ওনাকে ডাকলেও উনি শুনতে পাননি। এরপর উড়িষ্যার বিজু জনতা দলের সাংসদ ভর্তৃহরি মাহতাব এর নাম ডাকেন তিনি। এরপর শিবসেনার সাংসদ নিজের চেয়ার থেকে উঠে বলেন আমি শুনতে পাই নি। কিন্তু মিনাক্ষী লেখি অরবিন্দ সাওয়ান্তকে আর বলার সুযোগ দেননি।
এরপর পশ্চিমবঙ্গের হুগলীর বিজেপির সাংসদ শ্রীমতী লকেট চ্যাটার্জী নাগরিক সংশোধন বিলকে দ্রুত আইন হিসেবে চালু করার আবেদন করেন। এই বিলের মাধ্যমে তিনি বিরোধীদের বিরুদ্ধেে আক্রমণ শানান। লকেট চ্যাটার্জী বলেন, পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের না, রোহিঙ্গা মুসলিমদের স্বাগত জানানো হয়।
বিজেপির সাংসদ লকেট চ্যাটার্জী অভিযোগ করে বলেন, পশ্চিমবঙ্গে ৭০ লক্ষের বেশি অনুপ্রবেশকারী আছে। গোটা রাজ্যে এই অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের কারণে অপরাধ বেড়েই চলেছে। তারা অপরাধ করে আর বর্ডার দিয়ে পালিয়ে যায়। দিন কয়েক আগে মালদায় এক অজ্ঞাত পরিচয় তরুণীকে ধর্ষণ করে জ্বালিয়ে মারা হয়েছিল। লকেট চ্যাটার্জী সেই ঘটনার কথা উল্লেখ করে বলেন, এই ঘটনার পিছনেও অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের হাত আছে।

No comments

Powered by Blogger.