Header Ads

মহারাষ্ট্রে বড় চমক বিজেপির! শনিবার সাতসকালে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ বিজেপির দেবেন্দ্র ফডনবীশের


ননী গোপাল ঘোষ -- 23 নভেম্বর
শুক্রবার রাত অবধি ঠিক ছিল মহারাষ্ট্রের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন শিবসেনা সুপ্রিমো উদ্ধব ঠাকরে । মারাঠা মুলুকে শিবসেনা, এনসিপি ও কংগ্রেসের জোট পাকা ।




কিন্তু এর মধ্যেই হয়ে গেল অবিশ্বাস্যভাবে মধ্যরাতের ক্যু ! কথা নেই , বার্তা নেই -- শনিবার সাতসকালে দেখা গেল মুম্বইয়ের রাজভবনে বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফডনবীশ মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিচ্ছেন । উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিচ্ছেন এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ারের ভাইপো অজিত পাওয়ার ।




এই চমকের জন্য তৈরি ছিল না সংবাদমাধ্যমও। কারণ শুক্রবার সন্ধ্যায় শরদ পাওয়ার সাংবাদিক বৈঠকে ঘোষণা করেছিলেন, উদ্ধব ঠাকরেই মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন মহারাষ্ট্রে। কিন্তু শনিবার সাতসকালে দেখা গেল উলট  পুরাণ। শনিবার সকাল 8 টা 5 মিনিটে দেখা গেল মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিচ্ছেন দেবেন্দ্র ফডনবীশ আর উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিচ্ছেন অজিত পাওয়ার ।





মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পর দেবেন্দ্র ফডনবীশ জানিয়েছেন, বিজেপির শরিক হিসাবে শিবসেনাও অনেক আসন জিতেছিল । কিন্তু ভোটের পরই বেচাল শুরু করে শিবসেনা । যা রাজ্যের পক্ষে শুভ ছিল না । মহারাষ্ট্রে খিচুড়ি সরকার চায় না মানুষ ।






এই অবস্থায় এনসিপি সুপ্রিমো  শরদ পাওয়ারের দাবি, বিজেপি - এনসিপি সরকার যে হচ্ছে সেটা তিনি জানতেনই না । যখন জেনেছেন তার একটু পরেই  শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হতে চলেছে রাজভবনে ।




টুইটও করেন শরদ পাওয়ার । টুইটারে তিনি লেখেন, মহারাষ্ট্রে বিজেপিকে সমর্থন অজিত পাওয়ারের একান্ত ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত । এর সঙ্গে এনসিপির কোন যোগ নেই।




এদিকে মহারাষ্ট্র নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর যাঁকে সেনা শিবিরের তরফে সবচেয়ে বেশি সরব থাকতে দেখা গেছে এবং যিনি বারবার মুখ খুলেছেন সংবাদমাধ্যমের কাছে সেই শিবসেনা সাংসদ ও সেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউতের কার্যত হতাশ মন্তব্য, গত দিন কুড়ি ধরে সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা চলছে এনসিপির সঙ্গে । অজিত পাওয়ারও তাতে সামিল ছিলেন । তারপর যা হল তা হল পেছন থেকে ছুড়ি মারা । মহারাষ্ট্রের মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করলেন অজিত পাওয়ার ।




শিবসেনা শিবিরের খবর, এভাবে সরকার গঠনের বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হতে পারে শিবসেনা । তবে, সবকিছুই স্পষ্ট হবে উদ্ধব ঠাকরের সাংবাদিক বৈঠকের পর ।

No comments

Powered by Blogger.