Header Ads

পাকিস্তানের ইসলামাবাদে ইমরানের পদত্যাগের দাবিতে বিশাল জমায়েত, তটস্থ পাক প্রশাসন

ননী গোপাল ঘোষ : পাকিস্তানের জমিয়েত উলেমা-ই-ইসলাম ফজল ( জেইউআই- এফ) প্রধান প্রভাবশালী ইসলামিক ধর্মগুরু মৌলানা ফজলুর রেহমানের নেতৃত্বে ২৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া  'আজাদি মার্চ' ইসলামাবাদ পৌঁছেছে। এই মিছিলে সামিল হয়েছে পাকিস্তানের দুই প্রধান বিরোধী দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ও পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন)। আজাদি মার্চ সুক্কুর, মুলতান, লাহোর ও গুজরানওয়ালা হয়ে শুক্রবার ইসলামাবাদ এসেছে।
মৌলানা ফজলুর রেহমান জানিয়েছেন, পাকিস্তানের বিগত নির্বাচনে ব্যাপক রিগিংয়ের মাধ্যমে ইমরান খান ক্ষমতায় এসেছেন। ইমরানের উচিৎ দেওয়াল লিখন পড়ে পদত্যাগ করা। ইমরান পদত্যাগ না করলে তাঁরাই ইমরানকে গদিছাড়া করবেন। মৌলানা ফজলুর ইমরানকে সতর্ক করে বলেন, যদি প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ না করেন তবে পাকিস্তান জুড়ে অরাজকতার সৃষ্টি হবে।
পেশোয়ার মর এলাকায় বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির তরফে আজাদি মার্চে যোগদানকারীদের জন্য শিবির খোলা হয়েছে। পিপিপি নেতা বিলাওল ভুট্টো জারদারি বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করে বলেন, ইমরান খান একজন পুতুল মাত্র।পাকিস্তান একজন প্রধানমন্ত্রীর কাছে মাথা নোয়াবে না। আজাদি মার্চ নিয়ে তটস্থ পাক প্রশাসন ইসলামাবাদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর ও ভবনে নিরাপত্তা বাড়িয়ে দিয়েছে। বিক্ষোভকারীরা যাতে গুরুত্বপূর্ণ সড়কের দখল না নিতে পারে তার জন্য ব্যারিকেড তৈরি করা হয়েছে.
বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের নিরাপত্তাও আঁটোসাঁটো করা হয়েছে। পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী ইজাজ শাহ বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে হুমকির সুরে বলেছেন, যদি কোন ধরনের হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে তবে সরকার চুপ থাকবে না। তিনি আরও বলেন, তিনি আশা করছেন সরকার ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে যে চুক্তি হয়েছে তা মেনে চলবেন বিক্ষোভকারীরা।
পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফ অভিযোগ উঠিয়েছে, বিক্ষোভের পেছনে আসলে রয়েছে পিপিপি ও পিএমএল-এন। তারা চাইছে তাদের জেলবন্দি নেতৃত্বের মুক্তি। ইমরান খান পদত্যাগের দাবি উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন, তিনি নির্বাচন প্রক্রিয়া ও প্রশাসনিক ক্ষেত্রে রদবদল আনতে প্রস্তত। ইমরান গিলগিট-বালটিস্তানে এক জনসভায় শুক্রবার কটাক্ষের সুরে বলেন, আজাদি মার্চে অংশগ্রহণকরা বিক্ষোভকারীদের খাবার কম পড়লে, তাঁদের জন্য খাবার পাঠানো হবে। তবে তাঁদের নেতাদের ক্ষমার প্রশ্ন নেই। পিএমএল-এন সভাপতি শাহবাজ শরিফ আজাদি মার্চে যোগ দেওয়ার খবর পেয়ে এই মন্তব্য করেন ইমরান।

No comments

Powered by Blogger.