Header Ads

'অভিজিতের নোবেল প্রাপ্তিতে ভারত গর্বিত', মোদীর টুইট নোবালজয়ীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরই

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : একদিকে বিজেপি-নোবেলজয়ীর সংঘাত, অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর আসনে থেকে দেশের অন্যতম 'গর্ব'কে স্বাগত জানানোর আয়োজন। এমন এক প্রেক্ষাপটেই এদিন দিল্লির ৭, লোককল্যাণ মার্গে নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় নরেন্দ্র মোদীর।
এদিনের সাক্ষাতের পর প্রধানমন্ত্রী মোদী একটি টুইট বার্তায় জানান তাঁদের আলোচনা পর্বে এদিন কী উঠে এসেছে। মোদী লেখেন, ‘নোবেলজয়ী অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ অত্যন্ত সুন্দর হয়েছে। হিউম্যান এমপাওয়ারমন্ট নিয়ে তাঁর উদ্যম বারবার উঠে আসে। আমাদের খুবই ভালো আলোচনা হয়েছে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। ভারত তাঁর প্রাপ্তির জন্য গর্বিত। তাঁকে তাঁর ভবিষ্য়ৎ জীবনের জন্য শুভেচ্ছা জানাই।'
প্রসঙ্গত, রাজ্য বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার তরফে নোবলজয়ী অর্থনীতিবিদ প্রসঙ্গে সদ্য উঠে এসেছে এক কটাক্ষের মন্তব্য। যা নিয়ে সরগরম রাজ্য রাাজনীতি। এমন এক প্রেক্ষাপটে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙঅগে মোদীর সাক্ষাৎকারি ঘিরে ছিল তুমুল জল্পনা।
এদিকে বহু প্রতীক্ষিত অভিজিৎ-মোদী সাক্ষাৎ সম্পন্ন, বরফ গলার জল্পনা তুঙ্গে উঠে গেল। বাংলার রাজনীতি এই মুহূর্তে সরগরম নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে বঙ্গ বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার মন্তব্য নিয়ে। যে মন্তব্যে রাহুল সিনহা অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে কটাক্ষ করেছেন। এছাড়াও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েলর সমালোচনার মুখে পড়ে যান অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। এমন এক পরিস্থিতিতে আজ মোদী-অভিজিৎ সাক্ষাৎ সম্পন্ন হয় দিল্লির , ৭ লেক কল্যাণ মার্গে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে।
আজই দুদিনের সফরে ভারতে এসেছেন নোবাল জয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। নিজের দক্ষিণ কলকাতার বাড়িতে এদিন নোবেল জয়ের পর প্রথমবার পাা রাখতে চলেছেন এই কৃতি বাঙালি। ছেলের অপেক্ষায় মা নির্মলা দেবী বাড়িতে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রকমের মাছের পদ রান্নার আয়োজন করেছেন।
নোবেল জয়ীর সঙ্গে সংঘাতে বিজেপি নোবেল জয়ী বঙ্গ অর্থনীতিবিদকে নিয়ে রাজ্য বিজেপির তরফে রাহুল সিনহার সাম্প্রতিক মন্তব্যে রীতিমতো তোলপাড় বঙ্গ রাজনীতি। অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের দ্বিতীয় বিয়েকে নিজের মন্তব্যে কটাক্ষ করেছেন রাহুল সিনহা। যার পরই বঙ্গ বিজেপির তরফে সব নেতাকে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।
এর আগে, বর্তমান বিজেপি সরকারের আর্থিক নীতি নিয়ে সমালোচনার বার্তা উঠে আসে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে। ভারতীয় অর্থনীতি উল্টো পথে হাঁটছে বলে মন্তব্য উঠে আসে নোবেলজয়ীর তরফে। এরপর থেকেই বিজেপি নেতাদের সমালচনার মুখে পড়েন অভিজিৎ।
কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল বলেন, অভিজিতের ভাবধারা বামপন্থা ঘেঁষা। তাঁর 'ন্য়াস স্কিম' ও ভারতের জনতা প্রত্যাখ্যাান করেছে। এরপরই বিজেপি বনাম নোবেলজয়ী সংঘাতের চিত্র আরও স্পষ্ট হয়।

No comments

Powered by Blogger.