Header Ads

ভারতের সাথে যুদ্ধ হলে, আমি সীমায় গিয়ে লড়াই করবো : শেখ রাশিদ, পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী !!


বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
শুধু পাকিস্তানি সাংবাদিক ও সিনেমার সেলিব্রেটি নয়, পাকিস্থানের নেতারাও আজব বিবৃতি দিতে শুরু করেছে। পাকিস্থানের মন্ত্রী ফাবাদ চৌধুরীকে ওনার নিজের পার্টির সংসদের বিরুদ্ধে নির্লজ্জ, কুত্তা, ও লাজুকের মতো অপমানজনক শব্দ ব্যবহার করেছেন। ভারত-পাক টেনশনের এর মধ্যে পাকিস্থানের রেলমন্ত্রী শেখ রাশিদ আহেমদ এমন কিছু বিবৃতি দিয়েছেন যেটা দেখে টুইটার ইউজারদের হাসি থামছে না। পাকিস্তানি মন্ত্রী নিজেকে ভারতীয় মুসলমানদের মনের আওয়াজ বলে দাবি করেছেন। এটা উনি ভারতে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তৈরি করার মতলবে বলেছেন।

শেখ রাশিদ নিজেকে ভারতীয় মুসলমানদের মনের আওয়াজ বলেই থামেন নি, তিনি আরো বলেন যে যদি দুটি দেশের মধ্যে যুদ্ধ হয় তবে তিনি নিজে সীমায় লড়তে যাবেন। তবে লক্ষণীয় বিষয় এই যে, ১৯৯৮ সালে পাকিস্তান যখন পরমাণু পরীক্ষা করেছিল তখন শেখ রশিদ আহমেদ ভয় পালিয়ে গেছিলেন। পরমাণু পরীক্ষণের সময় ভয় পেয়ে যাওয়া মন্ত্রী এখন ভারতের সাথে লড়াই করার কথা বলছেন। সীমায় গিয়ে নিজে লড়াই করার কথা বলেছেন শেখ রাশিদ !
একটি মিডিয়া চ্যানেলের সাথে কথা বলার সময় তিনি বলেছিলেন যে ওনার “ক্র্যাকার এদিক ওদিক হওয়ার বা লিকেজ হওয়ার ভয় আছে।” নিচে দেখানো ভিডিওতে আপনি তার এই বয়ানটি শুনতে পারবেন যে কিভাবে তিনি পরমাণু পরীক্ষার সময় ভয় পেয়ে পালিয়ে গেছিলেন !
যদি ওনার সাম্প্রতিক বয়ানের কথা ধরা হয়, তবে উনি বলেছেন যে “সময় এলে সবাই জানতে পারবে যে মুসলমান একাই অনেক হয়। যুদ্ধ হলে আমিও বলবো যে আমি কি ভাবে লড়বো।” উনি দাবি করেন যে ভারত পাকিস্তান যুদ্ধের সময় পাকিস্তান সেনা তো লড়বেই তার সাথে তিনিও লড়বেন। ওনার এই ভিডিওটি সামনে আসায় টুইটার ইউজারও জমিয়ে মজা উপভোগ করছে।

No comments

Powered by Blogger.