Header Ads

হাইলাকান্দির পরিস্থিতি খতিয়ে দেখলেন রাজ্যের মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্য ও রাজ্য পুলিশের এডিজিপি মুকেশ আগরওয়াল

                      
    বিপ্লব দেব, হাফলংঃ শুক্রবার জুম্মার নমাজকে কেন্দ্র করে হাইলাকান্দি শহরে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে হিংসাত্মক ঘটনার সৃষ্টি হয় তা খতিয়ে দেখতে এবং হাইলাকান্দি জেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে শনিবার সকালে হাইলাকান্দি শহরে উপস্থিত হন রাজ্যের বন ও আবগরি মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্য রাজ্যপুলিশের এডিজিপি মুকেশ আগরওয়াল ও বরাক উপত্যকার আয়ুক্ত আনোয়ার উদ্দিন চৌধুরি। শনিবার শহরে উপস্থিত হয়ে মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্য শুক্রবারের হিংসাত্মক ঘটনায় পুলিশের গুলিতে নিহত জসিম হুসেইনের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে গভীর শোক প্রকাশ করেন মন্ত্রী। অন্যদিকে স্থানীয় মানুষকে সর্বাবস্থায় শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানান বনমন্ত্রী। তারপর মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্য জেলাশাসক কীর্তি জল্লি পুলিশসুপার মহনীশ মিশ্র ও নিরাপত্তা বাহিনীর শীর্ষ অফিসারদের সঙ্গে জেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে মিলিত হন। তাছাড়া মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্যর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল টেলিফোন যোগে হাইলাকান্দি জেলার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন। এদিকে জেলাশাসকের নির্দেশে শুক্রবার রাত থেকে হাইলাকান্দি জেলায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার পাশাপাশি কাছাড় করিমগঞ্জ জেলায় ২৪ ঘন্টার জন্য ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেয় জেলাপ্রশাসন। হাইলাকান্দি শহরে কোন অপ্রিতিকর ঘটনা যাতে সংঘটিত করতে না পারে কোন দূষ্কৃতীকারী তারজন্য হাইলাকান্দি শহরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা কঠোর করা হয়েছে। শনিবার কাছাড় করিমগঞ্জ জেলার জেলাশাসকরা পুলিশসুপার ও বিশিষ্ট নাগরিকদের নিয়ে একটি শান্তি সভার আয়োজন করে। শান্তি সভায় দুটি জেলায় যে কোনও অবস্থায় শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানান জেলাশাসকরা কোনও গুজবে কান না দিতে সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয় শান্তি সভায়। উল্লেখ্য হাইলাকান্দি জেলায় কার্ফু বলবৎ থাকার দরুন হাইলাকান্দিতে শান্তি সমন্বয় সভা বাতিল করা হয়। শুক্রবার হাইলাকান্দিতে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে আহত হয়ে যারা শিলচর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তারা হলেন মেহবুব আহমেদ বড়ভূইয়া জাভেদ হুসেন আহমেদ সাকিল মজুমদার দিলোয়ার হুসেন জাভেদুল হক মীরা নুর ইসলাম সাহা আলম আমিরুল হক ও নরুল হক।

No comments

Powered by Blogger.