Header Ads

মাধ্যমিকের ফলাফল ঘোষণা, ৫৯৪ নম্বর পেয়ে শীর্ষ স্থানে লক্ষীপুরের মেঘাশ্রী বরা, উত্তীর্ণের হার ৬০.২৩ %

          মাধ্যমিকে শীৰ্ষ স্থান অৰ্জনকারী মেঘাশ্রী বরা
যুগ্ম ভাবে দ্বিতীয় স্থান অৰ্চিজনকারী চিন্ময় হাজরিকা 
দেবযানী পাটিকর, গুয়াহাটিঃ  দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে ঘোষণা করা হল মাধ্যমিকের ফলাফল। এর সাথে হাই মাদ্রাসা পরীক্ষার ফলাফলও ঘোষণা করা হয়। সোমবার সকাল ৯ টার সময় ঘোষণা করা হয় ফলাফল। এর পর থেকে প্রতিটি বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীর ভিড় উপচে পরে। ফলাফল ঘোষণা করার পর সমস্ত পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল। এ বার  মেট্রিক পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়েছে ৩ ,৩৬,২০৩   জন ছাত্রছাত্রী।  ২,০২০৫০৮  উত্তীর্ণ হয়েছে। প্রথম বিভাগে ৪৮,৫৯৯ জন,দ্বিতীয় বিভাগে ৭১,০২০ জন,ও তৃতীয় বিভাগে ৮২,৮৮৯,জন ছাত্র ছাত্রী উত্তীর্ণ হয়েছে। ইংরেজি মাধ্যম থেকে অসমীয়া মাধ্যমের ছাত্রছাত্রীরা এবার ভালো ফল করেছে। বিগত দুই বছরের তুলনায় এবার ম্যাট্রিক পরীক্ষাতে উত্তীর্ণ হার কিছু পরিমাণে বেড়েছে।
ওদিকে হাই মাদ্রাসাতে অবতীর্ণ হয়েছিল ৯১২৭জন ছাত্র-ছাত্রী এদের মধ্যে মোট ৫৩১০  জন ছাত্র-ছাত্রী উত্তীর্ণ হয়। হাই মাদ্রাসা তে উত্তীর্ণ ভেতরে ৬০০ জন প্রথম বিভাগে, ২১০২জন দ্বিতীয় বিভাগ ও ২৬০৮জতন লাভ করেছে তৃতীয় বিভাগ ।হাই মাদ্রাসা প্রথম স্থান লাভ করেছে সেলিম আহমেদ ।এবার ম্যাট্রিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হার ৬০.২৩ শতাংশ অন্যদিকে হাই মাদ্রাসার উত্তীর্ণর হার ৫৮.১৮ শতাংশ। ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রছাত্রীদের ফলাফল ভালো ছাত্রের উত্তীর্ণ হওয়ার ৬২.৬৯ শতাংশ,ও ছাত্রীর উত্তীর্ণর হার ৫৭.৯৯শতাংশ। প্রথম ১০ টা স্থান লাভ করেছে ৩৯ জন শিক্ষার্থী। 
উল্লেখ্য যে মেট্রিকে প্রথম স্থান লাভ করেছে লক্ষীপুরের শঙ্কারদেব শিশু বিদ্যানিকেতন মেঘাশ্রী বড়া, মেঘাশ্রী পেয়েছে মোট ৫৯৪ নম্বর। যুগ্ম ভাবে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাঘচাঙ্গের চিন্ময় হাজারিকা ও গুয়াহাটির সেন্ট মেরিজের প্রত্যাশা মেধী। এরা দুইজনেই ৫৯৩ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।তৃতীয় স্থানে রয়েছে নগাঁওয়ের ক্রিস্টিজ্যোতি স্কুলের ছাত্রী আফরিন আহমেদ ও গুয়াহাটি সেন্ট মেরিজ স্কুলের ছাত্রী অনুশ্রী ভূঁয়া।এরা দুজন পেয়েছে ৫৯১নম্বর। গুয়াহাটির সেন্ট মেরিজ স্কুল ছাত্রী সৃষ্টি শইকিয়া চতুর্থ স্থান লাভ করেছে সৃষ্টি পেয়েছে মোট 590। পঞ্চম স্থান অধিকার করেছে 5 জন ছাত্রছাত্রী এর মধ্যে  সেন্ট জোনস হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল বাকসার ফাল্গুনী শর্মা। ডন বক্স স্কুল ডিব্রুগড়ের লবজ্যোতি দাস, গোলাঘাট জাতীয় বিদ্যালয় গোলাঘাট এর উপাসনা মৌদই, নর্থ লখিমপুরের সেন্ট মেরিজ স্কুলের ছাত্রী  তুসিফ তম্মনা রহমান , আসাম জাতীয় বিদ্যালয় নুনমাটির ছাত্রী প্রিয়াঙ্কা কলিতা এরা মোট নম্বর পেয়েছে ৫৮৯। ষষ্ঠ  স্থান লাভ করেছে বরপেটা গভমেন্ট হাই স্কুলের রাজশ্রী পাঠক ,বরপেটা গভমেন্ট হাই স্কুলের ছাত্রী  অভীপ্সা দাস, গোযালপাড়া  সেন্ট্রাল গার্লস হাই স্কুলের শারমিন হাসান্ত, বেজারা উদয়ন স্কুলের অনুরাগ বর্মন পুটিমারি পায়োনিয়ার একাডেমির, প্রিয়ম কাশ্যপ।ষষ্ঠ স্থান অধিকার করা ৫ জন ছাত্রছাত্রী মোট নম্বর পেয়েছে ৫৮৮।
সপ্তম স্থানে রয়েছে নর্থ লক্ষিমপুরের সেন্ট মেরিজ স্কুলের অলক বরগোহাই ও দিব্যজ্যোতি শর্মা ,নগাওএর পুরানা গুদাম আরকেবিএস স্কুলের অংকুররাজ, ও নলবাড়ির  লিটিল ফ্লাওয়ার স্কুলের নিকিতা কলিতা। সপ্তম স্থান অধিকার করা ৪ জন ছাত্রছাত্রী  পেয়েছে ৫৮৭ নম্বর।
ইভেন কাশ্যপ কলিতা ,নিশিতা খাটনিয়ার,বরষাডেকা, ঈশান ভূঁইয়া, দীপ শইকীয়া দেবশ্রী শইকীয়া, এই ৬ জন ছাত্র ছাত্রী অষ্টম স্থান অধিকার করেছে এবং এদের মোট নম্বর ৫৮৬। নবম স্থান অধিকার করেছে হীরক জ্যোতি চৌধুরী,  জেফরিন আরা আহমেদ,। ইরফান হক ,দ্বীপ শেখর কলিতা, ও অর্চিতা দেওরা এদের মোট নম্বর ৫৮৫। দশম স্থান অধিকার করেছে উদীপ্তা কলিতা ,অনির্বাণ দত্ত, আচ্যুৎ কুমার চেতিয়া ,মনীষা মালাকার, সাগ্নিক বনিক, মিন্টু গায়েন ও। দিব্যজ্যোতি শর্মা। দশম স্থান লাভ করা এই ৭ জন ছাত্র ছাত্রীর মোট নম্বর ৫৮৩।

No comments

Powered by Blogger.