Header Ads

আলফার কমাণ্ডার ইন চিফ পরেশ বরুয়া দূৰ্ঘটনায় মারা গেছেন মিথ্যা,উদ্দেশ্য প্ৰণোদিত অপপ্ৰচার বলে আলফার দাবি

গুয়াহাটিঃ আজ সকাল থেকেই দেশ বিদেশের সংবাদ মাধ্যম একটি গুরুত্বপূৰ্ণ সংবাদকে ‘ব্ৰেকিং নিউজ' হিসাবেবার বার প্ৰচার করে যাচ্ছে। সোসালমিডিয়ায় ‘ভাইরাল' হয়ে গেছে নিউজটি। আলফার কমাণ্ডার ইন চিফ পরেশ বরুয়া দূৰ্ঘটনায় মারা গেছেন। পরে আলফার পক্ষ থেকে বৈদু্যতিন দপ্তরে ই-মেইল পাঠিয়ে বলা হয়, পরেশ বরুয়া সুস্থ এবং নিরাপদেই আছেন। এক স্বাৰ্থান্বেষী চক্ৰ ভূয়া খবর পরিবেশন করেছে। আলফার প্ৰাক্তন সদস্য তথা আলোচনাপন্থী নেতা অনুপ চেতিয়া সংবাদ মাধ্যমকে জানান, পরেশ বরুয়া মারা যাওয়ার খবর সম্পূৰ্ণ মিথ্যা। স্বাৰ্থান্বেষী চক্ৰের অপপ্ৰচার মাত্ৰ। ধলার ঘটনার দিন তার সঙ্গে পরেশ বরুয়াযোগযোগ করেছিলেন, কিন্তু কথা বলা সম্ভব হয়নি। তার আগে পরেশ বরুয়া তাকে জানিয়েছিলেন, মাস তিনেক আগে এক পথ দূৰ্ঘটনায় তার আঘাত লাগে। পাঁজরের এবং আঙুলে আঘাত লাগে। এখন চিকিৎসা চলছে, বাইক দূৰ্ঘটনায় তিনি আহত হন। এক পাথরের সঙ্গে বাইকে ধাক্কা লাগে। এখন বৰ্তমানে তিনি সুস্থ। অন্য এক সংবাদ সূত্ৰ জানিয়েছে, চিন-মায়ানমার সীমান্তের কাছে রুইলি নামে এক স্থানে বাইক দূৰ্ঘটনা ঘটে মাস খানিক আগে। আজ বৈদু্যতিন মাধ্যমের কাৰ্যালয়ে ই-মেইল করে আলফা নেতা রমেল অসম জানিয়েছেন, ভারত-মায়ানমার সীমান্তে এই দূৰ্ঘটনা ঘটেছিল। কায়েমী স্বাৰ্থান্বেষী চক্ৰ বারবার আলফার (স্বাধীন) সেনাধ্যক্ষ পরেশ বরুয়ার মৃত্যুর ভূয়ো খবর প্ৰচার করছে। প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তরুণ গগৈ আজ বলেছেন, স্বাধীন অসমের দাবি তারা সমৰ্থন করে না। তবে পরেশ বরুয়ার মৃত্যু তাদের কাম্য নয়। সুস্থ ভাবে তিনি বেঁচে থাকুন। এর আগে বেশ কয়েকবার বিদেশের মাটিতে পরেশ বরুয়ার মৃত্যু হয়েছে বলে অপপ্ৰচার হয়েছিল। এই ঘটনার পিছনে আলফার বিশেষ কোনও কূট-কৌশল থাকতে পারে বলে অনেকের দাবি।

No comments

Powered by Blogger.