Header Ads

পরিষদ নির্বাচনের জন্য ১৪০ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করেন রিটার্নি অফিসার

বিপ্লব দেব হাফলং
 উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনের জন্য দাখিল করা ১৪০ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করেন রিটার্নি অফিসার অমিতাভ রাজখোয়া। পার্বত্য পরিষদের নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র দাখিল করার সময়সীমা ছিল ২৪ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত। ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত পার্বত্য পরিষদের ২৮ টি আসনের জন্য মোট ১৪০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। শুক্রবার মনোনয়নপত্রগুলি পরীক্ষা করে ১৪০ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষনণা করেন ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক তথা রিটার্নি অফিসার অমিতাভ রাজখোয়া। আগামী ৭ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। এদিকে পার্বত্য পরিষদ নির্বাচনের জন্য বিজেপি-র টিকিট বন্টন নিয়ে দলের একাংশ কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। যার দরুণ বিজেপির একাংশ নেতা কর্মী বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেস ও অগপ দলে ভিড়ছেন। পরিষদের লাংটিং আসন থেকে হেমন লাংথাসা বিজেপির টিকিট না পাওয়ার জেরে লাংটিং আসনের অগপ প্রার্থী তথা প্রাক্তন সিইএম দেবজিৎ থাওসেনের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। দেবজিৎ থাওসেন এই প্রতিবেদককে বলেন বিজেপি-র প্রার্থী হিসেবে হেমন লাংথাসা শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তবে হেমন অগপ ও দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ায় এবং দেবজিৎ থাওসেনের সঙ্গে হাত মেলানোয় অগপ-র শক্তি অনেকটা বেড়ে গেছে এমনটাই মনে করছেন দেবজিৎ থাওসেন। এদিকে গেরুয়া শিবির এবার বিজেপির সক্রিয় নেতা হেমন লাংথাসাকে প্রার্থী না করে গেরুয়া শিবির লাংটিং আসনে হেমন লাংথাসাকে টিকিট থেকে বঞ্চিত করে গলঞ্জয় থাওসেনকে প্রার্থী করা হয়। এছাড়া হাফলং আসনে বিজেপির টিকিটের প্রবল দাবিদার মনোজ গার্লোসাকে গেরুয়া শিবির টিকিট না দিয়ে বিধায়ক বীরভদ্র হাগজার বীরভদ্র হাগজারের জামাতা জীবরাজ দাওলাগাপুকে টিকিট প্রদান করে। যার দরুণ বিজেপির অন্দরে এখন নেতা কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

No comments

Powered by Blogger.