Header Ads

আসু ও নেসোর ডাকা ১১ ঘন্টার অসম বনধে পাহাড়ি জেলার জনজীবন স্তব্ধ


   বিপ্লব দেব হাফলং- নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় সারা অসম ছাত্র সংস্থা আসু ও নেসোর ডাকা ১১ ঘন্টার অসম বনধের ব্যাপক প্রভাব পড়ে অসমের অন্যতম পাহাড়ি জেলা ডিমা হাসাওয়ে। মঙ্গলবার আসু ও নেসোর ডাকা ১১ ঘন্টার অসম বনধকে সমর্থন জানায় ডিমাসা স্টুডেন্টস ইউনিয়ন অল ডিমাসা স্টুডেন্টস ইউনিয়ন এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে আসু ও নেসোর ডাকা অসম বনধে পাহাড়ি জেলার জনজীবন সম্পূর্ণ বিপর্যস্ত করে তুলে। বনধের দরুন জেলার সদর শহর হাফলং সহ মাহুর মাইবাং উমরাংশু হারাঙ্গাজাও এলাকায় বনধ ছিল সর্বাত্মক। তবে বনধকে কেন্দ্র করে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে হিংসাত্মক ঘটনা সংঘঠিত হলেও পাহাড়ি জেলাতে বনধ ছিল সর্বাত্মক ও শান্তিপূর্ণ। জেলার কোনও জায়গা থেকে বনধকে কেন্দ্র করে কোন অপ্রিতিকর ঘটনার খবর মেলেনি। এদিকে বনধের জেরে শৈলশহর হাফলঙে বাজার হাট দোকান পাট সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অফিস আদালত ব্যাঙ্ক পোষ্ট অফিস পার্বত্য পরিষদ সচিবালয় সবই ছিল বন্ধ। তবে পার্বত্য পরিষদের সাধারণ নির্বাচনের জন্য জেলাশাসকের কার্যালয়ে কাজ কর্ম চলে যথারীতি। বনধ চলাকালীন নির্বাচনী প্রচার অভিযানে কোন সমস্যা হয়নি। জেলার কোনও জায়গা থেকে দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল করে নি। তবে পাহাড় লাইনে ট্রেন চলাচল ছিল সম্পূর্ণ স্বাভাবিক। মঙ্গলবার আসু ও নেসোর ডাকা অসম বনধকে অল ডিমাসা স্টুডেন্টস ইউনিয়ন সমর্থন জানালে ও আজ ছাত্র সংঘঠনটির ২৮ তম প্রতিষ্ঠা দিবস হাফলং জেলা গ্রন্থাগার প্রেক্ষা গৃহে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পালিত হয়।

              

No comments

Powered by Blogger.