Header Ads

পার্বত্য পরিষদের নির্বাচনের জন্য ইস্তাহার প্রকাশ করল জেলা কংগ্রেস ও পরিষদ নির্বাচন থেকে ১১ জন প্রার্থী নাম প্রত্যাহার করে নেয় সোমবার

বিপ্লব দেব, হাফলং- উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করার শেষ দিন পার্বত্য পরিষদের ২৮ আসনের মধ্যে ৮ টি আসনের ১১ জন প্রার্থী তাদের নাম প্রত্যাহার করে নেয়। জাটিঙ্গা আসনে সবচেয়ে বেশী ৩ জন প্রার্থী নির্বাচন থেকে নাম প্রত্যাহার করেন। মোট ১১ জন প্রার্থীর মধ্যে ১০ জন নির্দল প্রার্থী ও ১ জন অগপ প্রার্থী নাম প্রত্যাহার করে নেন। এদিকে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন যে সব প্রার্থী নাম প্রত্যাহার করে নেয় তাদের মধ্যে জাটিঙ্গা আসনের প্রার্থী লালগামা বাপুই (নির্দল) ওবাস্টিং পাচুয়ান (নির্দল) তুংসাং হাওলাই (নির্দল)। গরমপানি আসনের নির্দল প্রার্থী কুর রংপি। দিহামলাই আসনের নির্দল প্রার্থী হাইলাকাম্বে কুয়ামে। পূর্ব মাইবাং আসনের নির্দল প্রার্থী যতন জিডুং লাংটিং আসনের নির্দল প্রার্থী রথীন্দ্র থাওসেন। লাংটিং আসনের নির্দল প্রার্থী দীনেশ ফংলো। মাহুর আসনের নির্দল প্রার্থী লালরূপি মার। দিহাঙ্গী আসনের অগপ প্রার্থী বাবলু জহরী হাঙ্গরুম আসনের নির্দল প্রার্থী হেদুওয়াম্বে রিয়ামে। উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনের জন্য মোট পরিষদের ২৮ টি আসনে মোট ১৪০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করে ছিলেন। সোমবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করার শেষ দিন ১১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ার জেরে এবার মোট ১২৯ জন প্রার্থী নির্বাচনী যুদ্ধে অবতীর্ণ হবেন। এদিকে সোমবার ডিমা হাসাও জেলা কংগ্রেস তাদের নির্বাচনী ইস্তাহার প্রকাশ করেন এদিন হাফলং রাজীব ভবনে জেলা কংগ্রেসের সভাপতি নির্মল লাংথাসা সহ-সভাপতি রূদ্রজিৎ লাইসরাম হাফলং আসনের কংগ্রেস প্রার্থী
ডেনিয়েল লাংথাসা কংগ্রেসের নির্বাচনী ইস্তাহার প্রকাশ করেন। কংগ্রেসের নির্বাচনী ইস্তাহারে চমক কিছু না থাকলে ও পরিষদে কংগ্রেস দল ক্ষমতায় আসলে ডিমা হাসাও জেলার প্রধান সমস্যা পানীয় জলের সমস্যার সমাধান সহ জেলার পরিকাঠামোগথ ব্যবস্থা পূর্ত বিভাগের সড়ক সেতুত ডিমা হাসাও জেলার অসম-মণিপুর, অসম-মেঘালয়, অসম-নাগাল্যান্ড সীমান্তবর্তী এলাকার রাস্তাঘাটের উন্নয়ন সহ সীমান্ত এলাকার মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজ করবে। তাছাড়া বেকার যুবক যুবতীদের কর্ম সংস্থান দেওয়ার বিষয়টি ইস্তাহারে উল্লেখ করা হয়। তাছাড়া ছোট ছোট ইন্ডাস্ট্রী গড়ে তুলা সহ পরিবহন ব্যবস্থা ও পাহাড়ের পর্যটন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাঁজানো সহ উমরাং আপাম বিশেষ পর্যটন জোন অথরিটি করার বিষয়টি কংগ্রেসের ইস্তাহারে উল্লেখ রয়েছে। তাছাড়া শিক্ষা ও কালচারকে উন্নত করার জন্য বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে এমনকি প্রপোসড ফ্ল্যাগশিপ প্রোগ্রাম বৃদ্ধি করা হবে। মহিলা সেলফ হেলপ গ্রুপ গুলিকে স্বনির্ভর করার ব্যবস্থা করা হবে। তাছাড়া বিজেপি সরকার যষ্ট তপশিলির সংশোধনী বিল ২০১৫ লোকসভায় এনে যে পঞ্চায়েত রাজ চালু করার চেষ্টা করে উপজাতি জনগোষ্ঠীর মানুষের অধিকার খর্ব করতে চাইছে কংগ্রেস তার বিরোধিতা করবে বলে কংগ্রেসের প্রকাশ করা ইস্তাহারে উল্লেখ করা হয়।

No comments

Powered by Blogger.