Header Ads

ব্রহ্মপুত্র নদের ওপর বড়দিনের শুভ দিনে নতুন বগীবিল সেতুর শুভ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীঃ নরেন্দ্ৰ মোদী



দেবযানী পাটিকরঃ
বড়দিনের শুভ দিনটিকেই বগীবিল উদ্বোধনের দিন হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। এই দিনই দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মঙ্গলবার দুপুরে দিকে বগীবিলের শুভ উদ্বোধন করবেন। এর জন্য বগীবিলের চারিদিকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে ।নিরাপত্তার ক্ষেত্রে ৩০০০ সুরক্ষা কর্মীকে নিযুক্ত করা হয়েছে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি করা বগীবিলকে বর্তমানে সুন্দর সাজিয়ে তোলা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল, আসামের রাজ্যপাল জগদীশ মুখী, মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল, অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা, রাজ্য রেলমন্ত্রী রাজেন গোহাই, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন জিজিজু। উদ্বোধনের আগে বগীবিল পরিদর্শন করেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই সেতু উদ্বোধনের দিনে সেখানে অনেক লোকের কথা চিন্তা করে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে চারটা বিশেষ ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ বিশেষ ট্রেনগুলো মঙ্গলবার দিন সকাল ৭ টা থেকে গোগামুখ ও মুরকংসেলের মাঝে যাত্রা করবে।

বগীবিল রেল তথা রুট ব্রিজ আসামের ডিব্রুগড় শহরের ১৭ কিলোমিটার নিম্নাংশে ব্রহ্মপুত্র নদের উপর নির্মিত করা হয়েছে। এই ব্রিজটিতে দ্বৈত লাইন বিজি ট্র্যাক এবং তিন লেনের রাস্তা যুক্ত হিসেবে নির্মাণ করা হয়েছে। ১৯৯৭ সালের ২২শে জানুয়ারিতে তদানিন্তন মাননীয় ভারতের প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড় এই প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন। ২০০২ সালের ২১শে এপ্রিল মাননীয় ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী স্বর্গীয় অটল বিহারী বাজপেয়ী সেতুর কাজের শুভারম্ভ করেছিলেন। এই বগীবিল সেতুটি ভারতের সবচেয়ে দীর্ঘ রেল তথা রোডের পাশাপাশি রেলওয়ে ব্রিজ হিসাবে পরিগণিত হবে। যার মোট দৈর্ঘ্য ৪.৯৪ কিলোমিটার এবং ৪,৮৫৭ কোটি টাকা খরচা করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সনাোয়াল আজ বগীবিলের প্ৰস্তুতি দেখে সাংবাদিকদের বলেন, দেশের মধ্যে বৃহত্তম রোড রেল সেতু অরুণাচল প্ৰদেশের সঙ্গে অসমের সংযোগ সাধিত হল। এর ফলে অসম তথা দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সুদৃঢ় হবে।

No comments

Powered by Blogger.