Header Ads

পরিষদের নির্বাচনে বাহু, অর্থবল ও প্রশাসন যন্ত্রকে ব্যবহার করে বিজেপি নির্বাচনে জয়ী হয়েছে অভিযোগ সমরজিতের


সাংবাদিকদের মুখোমুখি উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের প্রাক্তন বিধায়ক তথা পার্বত্য পরিষদের প্রাক্তন সিইএম সমরজিৎ হাফলংবার

 বিপ্লব দেব হাফলং-উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনে বাহুবল  প্রশাসন যন্ত্র ও অর্থের বিনিময়ে বিজেপি পার্বত্য পরিষদে ক্ষমতা দখল করতে সক্ষম হয়েছে বলে গুরুতর অভিযোগ তুলেন প্রাক্তন বিধায়ক তথা পার্বত্য পরিষদের প্রাক্তন সিইএম সমরজিৎ হাফলংবার। বৃহস্পতিবার নিজের বাসভবনে এক সাংবাদিক সন্মেলন ডেকে এই অভিযোগ তুলে বলেন এবারের নির্বাচনে গণতন্ত্র ও সংবিধান ধূলিসাৎ হয়েছে। কারণ বুথ দখল থেকে শুরু করে ব্যালট বক্স বদলি করা হয়েছে এমনকি অনেক ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ব্যালট পেপার রং ও বদলি ছিল বলে দাবি করেন সমরজিৎ হাফলংবার। সাংবাদিক সন্মেলনে সমরজিৎ আরোও অভিযোগ করে বলেন অনেক ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ব্যালট বক্সে বেশী ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে। সমরজিৎ বলেন পরিষদের দিয়ুংব্রা আসনের একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ব্যালট বক্স থেকে ১০১ টি ব্যালট পেপার বেশী বের হওয়ার পর কংগ্রেস প্রার্থী মায়ানন কেম্প্রাই এনিয়ে জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়ার কাছে লিখিত অভিযোগ জানানোর পর  জেলাশাসক এনিয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। এমনকি ডনবস্কো হাইস্কুলের স্ট্রং রুমের সিসি টিভি ক্যামেরা ২১ জানুয়ারি রাতে বিকল হয়ে পড়ার পরও এনিয়ে কোনও তদন্ত করা হয়নি বলে সমরজিতের অভিযোগ। তিনি আরো বলেন অসমের এক প্রভাবশালী মন্ত্রী এই খেলা রচনা করেন। সমরজিৎ বলেন নির্বাচনে জয় পরাজয় থাকেই তাই বলে কি এভাবে গণতন্ত্র ও সংবিধানকে পদদলিত করা হবে তা কোনও অবস্থাতেই মেনে নেওয়া যায় না। তাই এনিয়ে তিনি বুধবার রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আয়োগের কাছে এক লিখিত অভিযোগ ইমেল করে পাঠিয়ে দাবি জানিয়েছেন যারা এভাবে নির্বাচনে জয়ী হয়েছে তাদের সদস্য পদ খারিজ করা হোক। তারপর ও যদি নির্বাচন আয়োগ কোনও পদক্ষেপ না নেয় তাহলে  সমরজিৎ হাফলং ন্যায় পাওয়ার জন্য আদালতের দারস্থ হবেন। এদিকে ডিমা হাসাও জেলা বিজেপি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বনানী কেম্প্রাই সমরজিৎ হাফলংবারের তোলা এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। এদিকে সমরজিৎ হাফলংবারের এই অভিযোগ নিয়ে জেলাশসক তথা রিটার্নিং অফিসার অমিতাভ রাজখোয়ার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে জেলাশাসক জরুরি কাজে হাফলঙের বাইরে থাকায় এনিয়ে জেলাশাসকের কোন প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

No comments

Powered by Blogger.