Header Ads

অসমের আৰ্থ সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্ৰে মিসিং জনগোষ্ঠীর অবদান অতুলনীয়ঃ মুখ্যমন্ত্ৰী

মুখ্যমন্ত্ৰী কৃষি সা-সজুলি যোজনার সূচনা


 গুয়াহাটিঃ কৃষকরা রাজ্যের মেরুদণ্ডস্বরূপ, রাজ্যের আৰ্থিক পরিস্থিতি চাঙ্গা করার ক্ষেত্ৰে কৃষকদের অবদান অপরিসীম। কৃষকদের আৰ্থ সামাজিক উন্নয়ন সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে তারা যাতে মৰ্যাদা সহকারে জীবন নিৰ্বাহ করতে পারে সে ব্যাপারে রাজ্য সরকার সৰ্ববিধ ব্যবস্থা গ্ৰহণ করেছে। মুখ্যমন্ত্ৰী সৰ্বানন্দ সনোয়াল আজ ধেমাজিতে ‘মুখ্যমন্ত্ৰীর কৃষি সা-সজুলি যোজনা' সূচনা করে এই কথা জানান। মূখ্যমন্ত্ৰী আজ ১০ জন কৃষককে ৫ হাজার টাকার অনুমোদন পত্ৰ তুলে দিয়ে এই যোজনা শুরু করেন। তিনি বলেন, এই যোজনা সূচারুরূপে রূপায়নের ফলে জেলার ১৩,৮০০ কৃষক উপকৃত হবে। এই টাকায় তারা কৃষি সা-সরঞ্জাম কিনতে পারবে। হিতাধিকারীদের ব্যাঙ্কে এই টাকা সরাসরি দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্ৰী বলেন, প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদী ‘জনধন যোজনা'য় দেশের ৩২ কোটি মানুষকে এই যোজনায় অন্তৰ্ভুক্ত করেছেন। তার মধ্যে অসমের দেড় কোটি মানুষ এই সুযোগ পেয়েছেন। এছাড়াও ‘ফসল বীমা যোজনা', ‘সয়েল হেলথ কাৰ্ড', ‘কৃষি সিচাই' যোজনা প্ৰভূতি সুযোগ পেয়েছে কৃষকরা। রাজ্যের কৃষকদের ভিয়েতনামে নিয়ে গিয়ে প্ৰশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। অসমের উৎপাদিত শাক-সব্জি লণ্ডন, দুবাই, সিঙ্গাপুরে পাঠানো হচ্ছে। রাজ্যে আগে শুধু আন্দোলনই হত কোনও উন্নয়নমূলক কাজ-কৰ্ম হত না, এখন হচ্ছে। ব্ৰহ্মপুত্ৰ নদের উপরে প্তটি সেতু নিৰ্মাণ অনুমোদন পাওয়া গেছে, ডবল রেল লাইন তৈরি করা হবে। প্ৰধানমন্ত্ৰী গত ৯ ফেব্ৰুয়ারি গুয়াহাটি চাংসারিতে ১৮ হাজার কোটি টাকার এইমস প্ৰকল্প শিলান্যাস করেন। ধেমাজির এই অনুষ্ঠানে গ্ৰামোন্নয়ন ও পঞ্চায়েত মন্ত্ৰী নব কুমার দলে জানান, ২৬ হাজার গ্ৰামে ৫ লক্ষ কৃষককে এই যোজনায় ট্ৰেক্টার প্ৰদান করা হবে। লখিমপুরের সাংসদ প্ৰদান বরুয়া, বিধায়ক রণোজ পেগু প্ৰমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। আজই মুখ্যমন্ত্ৰী ধেমাজিতে মিসিং স্বায়িত্ব শাসিত পরিষদের নব নিৰ্বাচিত সাধারণ সদস্যদের শপথ গ্ৰহণ অনুষ্ঠানেও উপস্থিত ছিলেন। সেখানে তিনি বলেন, অসমের আৰ্থ সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্ৰে মিসিং জনগোষ্ঠীর অবদান অতুলনীয়। মুখ্যমন্ত্ৰী চাওলুং চ্যু-কা-ফার সমন্বয়র আদৰ্শে সমৃদ্ধি জাতি গড়ে তুলে জাতি সত্বাকে অধিক প্ৰাণবন্ত করে তোলার উপর ঐকান্তিক প্ৰয়াস চালানোর আহবান জানান। মিসিং স্বায়িত্ব শাসিত পরিষদের মুখ্য কাৰ্যবাহী সদস্য পরমানন্দ চায়েংগীয়া, মন্ত্ৰী নব কুমার দলে, বিধায়ক ভূবন পেগু, দেবানন্দ হাজরিকা, রণোজ পেগু উপস্থিত ছিলেন।

No comments

Powered by Blogger.