Header Ads

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে ‘মাতৃভাষার জন্য দৌড়াও’

কল্যাণ কুমার মুখোপাধ্যায়ঃ কলকাতা
 ফেব্রুয়ারির ২১তারিখে মধ্যবঙ্গবান্ধব পত্রিকার উদ্যোগে আয়োজিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে ‘মাতৃভাষার জন্য দৌড়াও’ শিরোনামে স্বল্পপাল্লার দৌড় প্রতিযোগিতা শুরু হবে সকাল সাড়ে আটটায় ফরাক্কা থানার জিগড়ি মোড় থেকে। শেষ হবে পুরাতন জাতীয় সড়ক ধরে এগিয়ে জয়রামপুর মোড়ে। ব্যবস্থাপনায় থাকবে ফরাক্কা থানার মাননীয় আই সি উদয়শঙ্কর ঘোষের সহযোগিতায় অর্জুনপুর পয়েন্ট স্টার ক্লাব। বয়স লিঙ্গ নির্বিশেষে যে কেউ আধার কার্ডের জেরক্স কপি জমা দিয়ে নাম নথিভুক্ত করতে পারেন। তবে বিচারকদের সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার মানসিকতা না থাকলে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। বিগত বছরগুলোতে যারা অশোভন আচরণ করে প্রতিযোগিতায় কালিমা লেপন করেছে তাদের নাম নথিভুক্ত না করার স্বাধীনতা ব্যবস্থাপক বা আয়োজকদের সংরক্ষিত রইল। নাম নথিভুক্তির জন্য অর্জুনপুর পয়েন্ট স্টার ক্লাব, মধ্যবঙ্গবান্ধব পত্রিকার সাংবাদিক কমল মিশ্র, ২নং কলোনির সাংবাদিক শাহজাদ হোসেন (বুড়ো), ফরাক্কা মডেল স্কুলের কর্ণধার নইমুদ্দিন হক, ফরাক্কা প্রফেসর সৈয়দ নুরুল হাসান কলেজের প্রধান করণিক অরুণ্ময় দাসের সঙ্গে যথাসত্বর যোগাযোগ করতে হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠান হবে অর্জুনপুর হাই স্কুলের মঞ্চে সকাল সাড়ে দশটায়। থাকবে আলোচনা-সভা, সঙ্গীত, আবৃত্তি, নৃত্য, আলেখ্য, কবিতার কোরিওগ্রাফ, সারা পৃথিবীর মানুষের মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষা নিয়ে সুদীর্ঘ আন্দোলন, আত্মদান, আমাদের মাতৃভাষা বাংলা নিয়ে শ্লাঘার ঐতিহ্য নিয়ে সঞ্জয় দাসের গবেষণাধর্মী চিত্র ও ইতিহাসভিত্তিক প্রদর্শনী,স্থানীয় কবি-সাহিত্যিক,সাহিত্যপ্রেমীদের প্রকাশিত গ্রন্থ, ক্ষুদ্র পত্র-পত্রিকার প্রদর্শনীসহ নানান অনুষ্ঠান। আমরা চাই আপনারা, আমাদের ভাষা-সহোদর ভাই বোনেরা প্রত্যেকেই আসুন অনুষ্ঠানে; উপলব্ধি করুন ভাষা শহীদদের আত্মত্যাগের গরিমা। মাতৃভাষা সূত্রে সহোদর ভাই বোনদের সাথে সংহতি বোধ করে নিজেকে বিরাটের অংশরূপে ভেবে গর্ব অনুভব করুন। জানুন কে সালাম, কে বরকত, রফিক, বরকত? কে তরণী, সুকোমল, কমলা,শচীন? কিসের জন্য তাঁরা পুলিশের সেনার গুলিতে প্রাণ দিয়ে গেলেন? সন্ধ্যায় ফরাক্কা চিত্তরঞ্জন মার্কেটে অমর একুশে উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে মাতৃভাষার অধিকার নিয়ে, তার মর্যাদা রক্ষা নিয়ে নিজের কর্তব্য বুঝে নিন। বাংলার ও অন্যান্য সংস্কৃতির সম্যক পরিচিতি লাভ করে সমৃদ্ধ হোন। এ আমাদের অনুরোধ নয়, দাবী। ভাষা ও সংস্কৃতির অস্তিত্ব রক্ষার জন্য এ আমাদের সুসংহতভাবে এগিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার। প্রত্যেককে শ্যামল বঙ্গীয় হরিৎ অভিনন্দনসহ-
কল্যাণ কুমার মুখোপাধ্যায়। (মধ্যবঙ্গবান্ধব পত্রিকার পক্ষ থেকে)

No comments

Powered by Blogger.